Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:৪২
প্রতারক পার্টনারদের সাথেই কেন সম্পর্কটা টিকে যায়?
অনলাইন ডেস্ক
প্রতারক পার্টনারদের সাথেই কেন সম্পর্কটা টিকে যায়?

কারো সাথে সম্পার্কটা টিকিয়ে রাখা মোটেই সহজ কোন কাজ নয়! তবুও কেন কিছু কিছু মানুষ তাদের প্রতারক পার্টনারদের সঙ্গেই সম্পর্কটা অটুট রাখেতে চান? সম্প্রতি এই নিয়ে একটি সমীক্ষা করে ‘হুইসপার’। সেই সমীক্ষায় উঠে এসেছে এই কারণগুলি-

১. কেউ বলেছেন- আমাদের দুই সন্তান রয়েছে এবং সেটাই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার প্রধান কারণ। তাছাড়া সারা জীবন একটি মানুষের সঙ্গেই শারীরিক সম্পর্ক থাকতে হবে এমনটি হতেই হবে তা নয়!   
২. মানুষ সব সময়েই আপনাকে কোন না কোন ভাবে দুঃখ দেবে। কিন্তু মানুষের ভাল দিকগুলো তার চেয়ে অনেক বড়, এমনটাও বলেছেন কেউ কেউ।  
৩. অনেকের বক্তব্য, প্রেম বিষয়টা খুব জটিল। প্রেম মানুষকে ক্ষমাশীল করে এবং জীবন এগিয়ে চলে।  
৪. অনেক নারীই জানিয়েছেন, তাদের সঙ্গীই তাদের জীবন। তাই চিটিং করার পরে সঙ্গীরা ক্ষমা চাইলে তারা ক্ষমা করে দিয়েছেন।  
৫. এক নারী বলেছেন যে, তার স্বামী অন্য সম্পর্কের কথা স্বীকার করার পর থেকেই নাকি তাদের সম্পর্ক আরো মজবুত হয়েছে। তাই তিনি সম্পর্কে থেকে যাওয়া নিয়ে একেবারেই অনুতপ্ত নন।  
৬. খুব অদ্ভুত কিছু উত্তরও পাওয়া গেছে সমীক্ষায়। যেমন একজন বলেছেন, ‘‘আমার মনে হয় আমার এটাই পাওনা ছিল, এর চেয়ে ভাল কিছু নয়। ’’
৭. এক ব্যক্তি তার সঙ্গিনীর চিটিংয়ের ব্যাপারে জানার পরে পুরোপুরিভাবে ‘ওপেন রিলেশনশিপ’ স্টেটাসে চলে গেছেন। তার মতে, এই ভাবেই তারা দুজনে আগের তুলনায় অনেক বেশি ভাল আছেন।  
৮. এক মহিলা জানিয়েছেন, শুধু মাত্র টাকার জন্যেই তিনি সম্পর্কে থেকে গেয়েছিলেন। পরে জীবনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে তিনি সম্পর্ক ভেঙে দেন এবং টাকার অঙ্কে শোধ করেন সেই সময়ের ঋণ।  
৯. অন্য এক মহিলা বলেন যে তার স্বামী তার প্রতিশ্রুতি ভুলে গেলেও তিনি ভোলেননি এবং সেই কারণেই তিনি সম্পর্ক ভাঙেননি।  
১০. কিছু অদ্ভুত উত্তরও এসেছে। যেমন একটি মেয়ে জানায়, সঙ্গীর প্রতারণার প্রতিশোধ নিতে সে গোপনে একটি ফন্দি আঁটছেন।  
১১. আবার কেউ কেউ চিটিংয়ের কথা জেনেও সম্পর্কে থেকে যাওয়াকে মূর্খামি বলেও বর্ণনা করেছেন।  
১২. অনেক পুরুষও জানিয়েছেন যে তাঁর নিজের দোষগুণ মিলিয়েই সঙ্গিনী তাকে গ্রহণ করেছেন। তাই সঙ্গিনীর প্রতারণায় কষ্ট পেলেও তাকে ছেড়ে যেতে পারেননি।  
১৩. সবচেয়ে চিত্তাকর্ষক উত্তরটি হল এই- ‘‘আমি নিজেও চিটিং করেছি। তাই থেকে গেয়েছি সম্পর্কে। চিটিংয়ের সঙ্গে সম্পর্কের গভীরতার কোনো সম্পর্ক নেই। ’’

বিডি-প্রতিদিন/এ মজুমদার

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow