Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:০৯
ডেটিং করুন বউ'র সঙ্গে, কমবে ডিভোর্স
অনলাইন ডেস্ক
ডেটিং করুন বউ'র সঙ্গে, কমবে ডিভোর্স

স্বামী-স্ত্রী মাসে অন্তত একবার রাত্রিকালীন ‘ডেটিং’ করলে ‘ডিভোর্স’-এর প্রবণতা কমে। ক্যালিফোর্নিয়ার ‘ম্যারেজ ফাউন্ডেশন’-এর ডিরেক্টর হ্যারি বেনসন এবং ক্যান্টারবেরি-র ‘লিঙ্কন ইউনিভার্সিটি’-র ‘সোশ্যাল রিসার্চ’-এর অধ্যাপক স্টিফেন ম্যাকের নেতৃত্বে গবেষণার ফলাফলে বলা হয়েছে এ কথা।  

প্রায় এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ৯৯৬৯ জন দম্পতির উপরে এই গবেষণা চলে। এর মধ্যে ১১ শতাংশকে সপ্তাহে একবার করে ‘ডেট নাইট’-এ পাঠানো হয়। ৩০ শতাংশ দম্পতিকে মাসে একবার করে ‘ডেট নাইট’-এ পাঠানো হয়। ২৩ শতাংশ দম্পতিকে অনিয়মিতভাবে একবার করে ‘ডেট নাইট’-এ পাঠানো হয়। আর ৩৬ শতাংশ দম্পতিকে কখনই ‘ডেট নাইট’-এ পাঠানো হয়নি।  
দেখা যায় যারা প্রত্যেক মাসেই নিয়মিত একদিন করে ‘ডেট নাইট’ করেছেন তাদের বিবাহিত জীবন সুখের এবং টিকে আছে। কিন্তু বাকি যারা ‘ডেট নাইট’-এ গেছেন বা যাননি, তাঁদের সম্পর্কের মধ্যে দূরত্ব কোন ভাবেই কমেনি।  

গবেষকদের মতে, স্বামী-স্ত্রী রাতে ‘ডেটে’ বেরোলে তারা যাবতীয় ক্লান্তি থেকে সরে আসতে পারেন। স্রেফ স্বামী-স্ত্রী একে অন্যের হাত ধরে ‘ডেট নাইট’-এ গেলে পরস্পরের উপরে ভাল করে মনোনিবেশ করতে পারেন। একে অন্যের অনুভূতিকে অনুভব করার সময় পান। ফলে দুজনের মধ্যে হারিয়ে যাওয়া মানসিক সম্পর্কটা আবার ফিরে আসে। যার জেরে অনেক তিক্ততা কেটে যায়।  

‘ডেট নাইট’ মানে কোথায় যাবেন? 
হতে পারে সিনেমা দেখা বা রেস্তোরাঁয় নৈশভোজ । এমনকি পরস্পরের হাত ধরে এদিক-সেদিক ঘুরে বেড়ানোও যেতে পারে। পার্কের বেঞ্চে বসে আড্ডায় মেতে যাওয়াও হতে পারে। এমনটিই বলেছেন গবেষকদল। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং তাঁর স্ত্রী মিশেল ওবামাও মাসে অন্তত কয়েকবার নিজেরাই একে-অপরের হাত ধরে ‘ডেট নাইট’-এ যান। তাঁদের এই ‘ডেট নাইট’-এ সঙ্গে দুই মেয়ে কখন থাকে না।  

বিডি-প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow