Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:০৯
পোষা প্রাণীর জন্য বিয়ে ভাঙলেন পাত্রী নিজেই!
অনলাইন ডেস্ক
পোষা প্রাণীর জন্য বিয়ে ভাঙলেন পাত্রী নিজেই!

পাত্রের পছন্দ ছিল পাত্রীকে।  পাত্রীও হবু বরকে অপছন্দ করেনি।  কিন্তু ‘কাবাব মে হাড্ডি’ হল অন্য কেউ।  পাত্র নারাজ পাত্রীর পোষা প্রাণীটিকে মেনে নিতে।  আর যে পাত্র তার পোষা প্রাণীটিকে মেনে নেবে না তার সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে তীব্র আপত্তি পাত্রীর৷ ফলে শেষমেশ  গেল বিয়েটা।  

বেঙ্গালুরুর করিশমা ওয়ালিয়া এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনার বিষয়৷ কেননা বিয়েটা ভেঙেছেন তিনি নিজেই৷ জীবনে সঙ্গী বা সঙ্গিনী খুঁজে নেওয়ার সময় সকলেই ভাল করে বুঝে নিতে চান৷ কেননা দাম্পত্য মানেই অনেকখানি কম্প্রোমাইজ, ব্যক্তিগত ইচ্ছে-অনিচ্ছে কাটছাঁট করে দু’জনে মিলে এক পথে সামিল হওয়া৷ কিন্তু সেখানে যে একটি পোষা প্রাণী যে কাঁটা হয়ে দাঁড়াবে কে জানত!

সম্প্রতি হবু বরের সঙ্গে তাঁর কথোপকথনের একটি স্ক্রিনশট ছড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ তাতে দেখা যাচ্ছে, বিয়ে তাঁর ঠিক হয়েই গিয়েছিল প্রায়৷ পাত্রের শুধু পছন্দ ছিল না হবু স্ত্রীর পোষ্যপ্রেম৷ কুকুরের সঙ্গে বিছানা ভাগাভাগি করা একদমই পছন্দ ছিল না তার৷ এছাড়া কুকুর নিয়ে পাত্রের মায়েরও কিছু সমস্যা ছিল৷ যার ফলে বিয়েটা করতে হলে প্রিয় পোষা প্রানীটিকে ছাড়তে হত কারিশমাকে৷ ফলে বিয়েটা ভাঙতে দ্বিধা করেননি৷ শুধু তাই নয়, এই সিদ্ধান্ত নিতে বিশেষ সময়ও নেননি,  সোশ্যাল মিডিয়ার চ্যাটেই নিজের মতামত জানিয়ে দেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্ট ছড়িয়ে পড়ার পর বহু লোক কারিশমার পক্ষেই মুখ খুলেছেন৷ কী করে একজন কুকুরকে ভালবাসতে না পারেন, তাই-ই অনেকের কাছে বিস্ময়৷ তবে কারিশমার সিদ্ধান্ত নেওয়ার সাহসকে তারিফ করেছেন বহুজন৷ কেননা বিবাহের মতো একটি প্রতিষ্ঠানকে অগ্রাহ্য করা সহজ নয়, তাও আবার পোষা প্রানীটির জন্য। আর এই কারণে বিয়ে ভেঙে দেওয়া প্রায় নজিরবিহীন৷ তবে বিবাহ পরবর্তী ঝামেলা এড়াতে কারিশমা এখন যে দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছেন, তাতেই অজস্র সাধুবাদ জমা পড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷

বিডি-প্রতিদিন/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow