Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ২২ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:৪৪
স্বামীর অত্যাচার থেকে বাঁচতে কুকুরের আশ্রয় নিচ্ছেন স্পেনের স্ত্রীরা!
অনলাইন ডেস্ক
স্বামীর অত্যাচার থেকে বাঁচতে কুকুরের আশ্রয় নিচ্ছেন স্পেনের স্ত্রীরা!

স্পেনের সমকালীন সমাজে পারিবারিক অশান্তি রীতিমতো বেড়ে চলেছে৷ যার শিকার গৃহবধূরা৷ অন্তত ১৩ শতাংশ বিবাহিত নারী এই সমস্যায় ভুগছেন৷ সবক্ষেত্রে নারীদের পক্ষে পুলিশের কাছে যাওয়া সম্ভব হয় না৷ তাই স্প্যানিশ স্ত্রীরা ঘরে অশান্তি রুখতে অভিনব এক উপায় বেছে নিয়েছেন। স্বামীর গালমন্দ, মারধর আর লাঞ্ছনা রুখতে তারা ঘরে আনছেন বিশেষ উপকারী এক বন্ধুকে৷ কোনো গড়বড় দেখলেই সেই বন্ধু ঝাঁপিয়ে পড়বে৷ ক্ষত বিক্ষত করে দেবে ‘অত্যাচারী’ স্বামীকে৷

নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে স্পেনের স্ত্রীরা তাই তারা রক্ষাকারী বন্ধু কুকুর কিনতে আগ্রহী৷ বাড়ছে বিক্রি৷ইতোমধ্যে এ কুকুর কেনার ধুম পড়েছে স্পেনে৷ নিজের প্রভুকে রক্ষায় সদা তৎপর এই কুকুর৷ মদ্যপ বা রগচটা স্বামী তার স্ত্রীকে মারতে এলে আর রক্ষা নাই, বিশেষ প্রশিক্ষিত কুকুর ভয়ানক আক্রমণ করে তার প্রভুকে রক্ষা করবে৷

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, যে নারীর কাছে কুকুর বিক্রি করা হবে, সেই কুকুরকে অন্তত ২০০ ঘণ্টা ট্রেনিং করানো হয়৷ যাতে প্রভুকে খুব ভালো করে চিনতে পারে এই রক্ষাকারী কুকুর৷

একটি সুন্দর দেখে কুকুর কোনো স্প্যানিশ স্ত্রী কিনলেন৷ কেউ জানে না যে তিনি গোপনে অন্তত ২০০ ঘণ্টা সেই কুকুরের সঙ্গে ট্রেনিং করেছেন৷ তার একটি ইশারাতেই আক্রমণকারীর উপর ঝাঁপিয়ে পড়তে প্রস্তুত সেই কুকুর৷ তার আঁচড়, কামড়ে ক্ষতবিক্ষত হয়ে যাবে বউ পেটানো স্বামী৷

বর্তমানে স্পেনের কুকুরের ভয়ে কুঁকড়ে থাকছেন রগচটা, নেশাখোর স্প্যানিশ স্বামীর দল৷ আগে বউকে মনের সুখে পেটানো যেত৷ এখন আর সেটা যায় না।


বিডি-প্রতিদিন/২২ অক্টোবর, ২০১৬/তাফসীর

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow