Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৩১ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৪৪
যে জেলখানায় থাকা কয়েদিদের স্বপ্ন!
অনলাইন ডেস্ক
যে জেলখানায় থাকা কয়েদিদের স্বপ্ন!
সংগৃহীত ছবি

জেল মানেই শাস্তির জায়গা! জেল মানেই যন্ত্রণার জায়গা! কিন্তু নাহ্! নরওয়ের একটি সংশোধনাগারের অন্দরমহল দেখলে তেমনটা মনে হওয়া তো দূরস্থান, পাঁচ তারা হোটেল বললে ভুল হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে।  

নরওয়ের ‘হ্যাল্ডেন প্রিজন’।

সে দেশের দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ জেল। ২০১০ সালে তৈরি হয় এই সংশোধনাগার। ‘ইনমেটস’দের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা থেকে শুরু করে, তাদের বিনোদনের বেশ কিছু আয়োজনও রয়েছে। খেলাধুলা, গান-বাজনার সময়ে কয়েদিদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেন জেলের কর্মীরাও।  

জেল মানেই যে অন্ধকারাচ্ছন্ন কুঠুরির মতো ঘর, তা এখানে একেবারেই নয়। ছোট্ট ছোট্ট সুন্দর সাজানো ঘর। জানালা দিয়ে বাইরে তাকালেই চোখে পড়বে সবুজ ঘন, নানা রঙের ফুল।  

কয়েদিরা নিজেরাই এখানে সবজি-ফলের ফলন ঘটান। রান্নাও করে তারা নিজেরাই।

একসঙ্গে খাওয়া-দাওয়া, টেলিভিশন দেখা— এই ধরনের কর্মকাণ্ডের মধ্যে তাদের স্বাভাবিক পরিবেশের মধ্যে থাকার সুযোগ করে দিয়েছে জেল কর্তৃপক্ষ।  
নরওয়ের অন্যান্য জেলের তুলনায় হ্যাল্ডেন প্রিজন-কে ‘ম্যাক্সিমাম সিকিউরিটি প্রিজন’ তালিকার মধ্যে ধরা হয়। কিন্তু সেখানকার কর্তৃপক্ষের মতে, আসামি যতই ভয়ানক হোক, তাকে ‘মানুষ’ হিসেবে সম্মান দিলে, কিছুটা হলেও তার ব্যবহারে তা প্রতিফলিত হয়।

উঁকি দেওয়া যাক হ্যাল্ডেন প্রিজন-এর অন্দরে— 

সবুজ গালিচা...


লম্বা করিডরের দু’ধারে ঘরের সারি


ঘরের ভিতরে...


সকাল-বিকেল কাটিয়ে দেওয়া যায় রোদে গা ভাসিয়ে


ঝিং-ঝ্যাঙের আয়োজন...

 

বিডি প্রতিদিন/১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow