Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৮:১৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৮:২৩
যৌনতায় অনীহায় জাপানের জনসংখ্যা কমতে পারে ৪ কোটি!
অনলাইন ডেস্ক
যৌনতায় অনীহায় জাপানের জনসংখ্যা কমতে পারে ৪ কোটি!
প্রতীকী ছবি

কর্ম জীবনের ব্যস্ততায় জীবন থেকেই মুছে যাচ্ছে যৌনতা। আর এই কারণেই তৈরি হতে পারে সঙ্কট।

যেভাবে জাপানে বাড়ছে 'যৌনতাহীন বিয়ের ট্রেন্ড' আগামী তিন দশকে দেশের জনসংখ্যা কমতে পারে ৩০ শতাংশ, এমনই দাবি গবেষণার।  

বর্তমানে জাপানের জনসংখ্যা ১২ কোটি ৭০ লাখ। গবেষণার দাবি যেভাবে যৌনতার প্রতি অনীহা বাড়ছে জাপানে, তাতে আগামী ২০৬০ সালের মধ্যে দেশের জনসংখ্যা কমে দাঁড়াতে পারে ৮ কোটি ৬০ লাখে। সম্প্রতি এই গবেষণা করেছে জাপানের 'ফ্যামিলি প্ল্যানিং অ্যাসোসিয়েশন'। এই সমীক্ষা থেকে সঙ্কটের সংকেত পেয়েই তৎপর জাপান সরকার।  

প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে 'সেক্স'-এর প্রয়োজনীয়তা নিয়ে নানান কর্মসূচী নিয়েছে জাপান সরকার। মূলত কর্মজীবনের অত্যধিক চাপ থেকেই জাপানী দম্পতিদের মধ্যে যৌনতা নিয়ে অনীহা তৈরি হচ্ছে, দাবি 'ফ্যামিলি প্ল্যানিং অ্যাসোসিয়েশন'-এর গবেষণায়। এমনিতেই জাপানে প্রতি সপ্তাহে একজন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মী গড়ে ৬০ ঘণ্টার ওপর কাজ করে।  

দেশে কর্ম দিবস নিয়ে একটি নির্দিষ্ট আইন থাকলেও অতিরিক্ত পরিশ্রম জাপানে খুব স্বাভাবিক ঘটনা। তবে এই স্বাভাবিক অভ্যাসই জাপানে তৈরি করতে পারে সঙ্কট! অতিরিক্ত কাজের চাপে চাকুরীজীবীর আত্মহত্যা, এই ধরণের ঘটনা প্রায়ই ঘটছে জাপানে। এই ঘটনাগুলো যাতে আর না ঘটে তার জন্য সচেতন থাকার উপদেশও দেওয়া হয়েছে দেশের সরকারকে। জন্মহার এবং জনসংখ্যার স্বাভাবিক বৃদ্ধিকে অক্ষত রাখতে হলে জাপানে কাজের ধাঁচ পরিবর্তন করতে হবেই, মত বিশেষজ্ঞদেরও।


বিডি প্রতিদিন/১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow