Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • চাটাইয়ে মুড়িয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান!
  • কেরানীগঞ্জে বাচ্চু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ৭ জনের যাবজ্জীবন
  • ৩ মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদন
  • হালদা নদীর পাড়ের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ
  • আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা
  • কাদেরের বক্তব্যে একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী
  • কলারোয়া সীমান্তে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
  • বিএনপি নির্বাচনে না এলেও গণতন্ত্র অব্যাহত থাকবে: কাদের
প্রকাশ : ৬ মার্চ, ২০১৭ ১০:৫৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৬ মার্চ, ২০১৭ ১০:৫৮
গোটা বনাঞ্চল গিলে ফেলছে যে গহ্বর
অনলাইন ডেস্ক
গোটা বনাঞ্চল গিলে ফেলছে যে গহ্বর

গত দুই লাখ বছরের ভূতত্ত্বের ইতিহাসে আধ মাইল লম্বা একটি গহ্বর বিস্ময় হিসেবেই থেকে গেছে। সাইবেরিয়ার এই ৩০০ ফিট গভীর ওই গহ্বরটির পরিচিতি বাটাগাইকা গহ্বর নামে। বিশালাকার গহ্বরটিকে স্থানীয় মানুষ 'নরকের দরজা' হিসেবেই জানেন।

প্রতি বছর বাটাগাইকা গহ্বর ৩০ থেকে ১০০ ফিট করে বাড়ছে আয়তনে। সেই সঙ্গে আশেপাশের অরণ্যকেও সে গিলে খাচ্ছে। ফলে দ্রুত বদলে যাচ্ছে উত্তর ইয়াকুতিয়া অঞ্চলের ভৌগোলিক চালচিত্র। 

কোয়াটেরনারি রিসার্চ নামক এক জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণা নিবন্ধে দেখানো হয়েছে, এই গহ্বরের গভীরের বিভিন্ন ভূতাত্ত্বিক স্তর উন্মুক্ত হওয়ায় বিচিত্র তথ্য উঠে আসছে। গহ্বরের গভীরে প্রাচীন বৃক্ষের অবশেষ থেকে অনুমান করা হচ্ছে, একটা ঘন অরণ্য ছিল এই অঞ্চলে। পরে তাকে এই গহ্বর গ্রাস করেছে।

সাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক জুলিয়ান মর্টন জানিয়েছেন, ভূতাত্ত্বিক উতিহাসের এমন রেকর্ড বিশ্বে আর নেই।

১৯৬০-এর দশকে জঙ্গল সাফ করতে গিয়েই এই গহ্বরের সন্ধান পাওয়া যায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, এ গহ্বর দিয়ে অনেক সময় আসে অপ্রাকৃত শব্দ। তবে বিজ্ঞানীদের মতে, সেগুলি মাটির চাঙড় ভেঙে পড়ার শব্দ।

বিডি প্রতিদিন/৬ মার্চ, ২০১৭/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow