Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১০ মার্চ, ২০১৭ ০৬:৩৪
আপডেট : ১০ মার্চ, ২০১৭ ১৩:৩৬

৬৩ বছর ধরে প্রতিদিন বালি খাচ্ছেন এই নারী, অতঃপর...!

অনলাইন ডেস্ক

৬৩ বছর ধরে প্রতিদিন বালি খাচ্ছেন এই নারী, অতঃপর...!
সংগৃহীত ছবি

ভারতের বারাণসী নিবাসী ৭৮ বছর বয়সী কুসমাবতী ৬৩ বছর ধরে প্রতিদিন নিয়মিত ভাবে পাঁচ-ছয়বার দুই মুঠ করে বালি খেয়ে আসছেন। বালি খাওয়ার কারণে শরীর অসুস্থ হওয়ার কথা থাকলেও বরং সুস্থ-সবল ও সেই সঙ্গে নীরোগ আছেন তিনি। 

কুসমাবতীর দাবি, সমবয়সী অন্য যে কোনো বৃদ্ধ বা বৃদ্ধার তুলনায় তিনি অনেক বেশি শক্তপোক্ত। শরীরে এখনও থাবা বসাতে পারেনি জরা কিংবা অন্য কোনো বার্ধক্যজনিত রোগ। এখনও কৃষি কাজ করতে পারেন সকাল-সন্ধ্যা। প্রতিদিন নিয়মিত বালি খাওয়ার অভ্যাসই তার এই বার্ধক্যরূপী তারুণ্যের মূল।

জানা যায়, মাত্র পনেরো বছর বয়সে কুসমাবতী এক বার দুরারোগ্য পেটের অসুখে শয্যাশায়ী হয়ে পড়েন তিনি। তার কোনো এক আত্মীয় পরামর্শ দেন, বালি খেলেই তার এই রোগমুক্তি ঘটবে। পরামর্শ অনুযায়ী বালি খেতে শুরু করেন কুসমাবতী। বালি খেতে শুরু করার কয়েক দিনের মধ্যেই সেরে যায় তার পেটের রোগ। সেই থেকে শুরু। তারপর ৬৩ বছর ধরে বালি খেয়ে যাচ্ছেন কুসমাবতী।  

তার ধারণা, বালির মধ্যে এমন‌ কোনো গুণ রয়েছে, যা তাকে সুস্থ থাকতে সাহায্য করে। চনিয়মিত বালি খাওয়ার ফলেই এই বয়সেও একেবারে সুস্থ রয়েছে তার দেহ। 

কিন্তু বালি খেতে ঘেন্না করে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে কুসমাবতী জানান, "তা কেন হবে বরং বালি খেতে বেশ ভালোই। অনেকটা নুন-চিনির মিশ্রণ যেমন হয়, তেমনই নোনতা-মিষ্টি স্বাদ হয় বালির।"

 


বিডি-প্রতিদিন/ ১০ মার্চ, ২০১৭/ আব্দুল্লাহ সিফাত-২৩


আপনার মন্তব্য