Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৭ মার্চ, ২০১৭ ২১:৪৮ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
যে দেশে ধর্ষণ প্রমাণ করতে লাগে ৪ জন সাক্ষী!
অনলাইন ডেস্ক
যে দেশে ধর্ষণ প্রমাণ করতে লাগে ৪ জন সাক্ষী!
প্রতীকী ছবি

পৃথিবীতে এমন অনেক দেশ রয়েছে যেখানে নারীদের অবস্থার উন্নতি এখনও হয়নি। আর তাদের মধ্যে সৌদি আরব একটি।

এখানে অনেক প্রাথমিক অধিকারও ভোগ করতে পারে না নারীরা। এই বিষয়টি আরও বেশি করে প্রকাশ্যে আসে যখন সেখানে নারীদের অধিকারের জন্য গার্লস কাউন্সিল গঠন করা হয়। কিন্তু কাউন্সিলের প্রথম মিটিংয়েই নারীদের বৈঠকে বসানো হয়নি।

সেখানে নারীদের যেসব নিয়ম-নীতির মধ্যে থাকতে হয় তা জেনে নিন-

১) দুজন পুরুষ সাক্ষী ছাড়া মেয়েরা সম্পত্তি কিনতে পারবে না।

২) এখানে কোনো মেয়ে খেলাধুলায় অংশগ্রহণ করতে পারে না। এমনটা করলে তাকে রোষের মুখে পড়তে হয়।

৩) বলা হয়, সৌদি আরবে ধর্ষণের ক্ষেত্রে কড়া আইন রয়েছে। তা সত্ত্বেও ধর্ষিতার সংখ্যা সেখানে যথেষ্টই বেশি। ধর্ষক তখনই শাস্তি পাবে, যখন এমন কাজের চারজন সাক্ষীর সাক্ষ্য পাওয়া যাবে।

তাই ধর্ষণ প্রমাণ করা বেশ কঠিন এখানে। শুধু তাই নয়, একা ঘরে ধর্ষণের পর সেই নির্যাতিতা যদি একাই রাস্তায় বের হয় তবে সেও শাস্তি পাবে। এখানে, স্ত্রীর সঙ্গে জোর করে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনকে ধর্ষণের আওতায় ধরা হয় না।

৪) এখানে কোনো নারী একা রাস্তায় বের হতে পারে না। তাকে তার পুরুষ-অভিভাবকের সঙ্গে বেরোতে হয়। এমনকি যার স্বামী বর্তমান নয়, তাকে তার ছেলের অনুমতি নিয়ে বেরোতে হয়।

৫) এতসবের পরেও পড়াশোনার ক্ষেত্রে নারীরা এখানে পুরুষের থেকে এগিয়ে। কিন্তু চাকরি ক্ষেত্রে তাদের সংখ্যা খুবই কম।

৬) গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রেও রয়েছে বিধি-নিষেধ। অনেক বিরোধিতার পর, সন্তানকে স্কুলে পৌঁছে দেওয়া এবং পরিবারের কেউ অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রেই তাদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে।


বিডি প্রতিদিন/১৭ মার্চ ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow