Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ মার্চ, ২০১৭ ১১:১০

চেঙ্গিস খাঁ'র দেশে বিশ্বের সবচেয়ে সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর বাস

অনলাইন ডেস্ক

চেঙ্গিস খাঁ'র দেশে বিশ্বের সবচেয়ে সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর বাস
সংগৃহীত ছবি

যে দেশের এক যোদ্ধা এক সময়ে বিশ্বজয় করেছিলেন! সেই দেশেরই এক ছোট্ট গ্রামের কথা হয়তো সকলেরই অজানা৷ চেঙ্গিস খাঁয়ের দেশের এই ছোট্ট গ্রামটি বরফে ঘেরা৷ আর তার মাঝেই রয়েছে ঘন বনজঙ্গল৷ আর তাতে বসবাস কয়েকশো মানুষের৷ যাদের প্রত্যেকেই বিশ্বের অন্যতম সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর সদস্য৷ এমনই এক গ্রামের বাসিন্দা দেলগের গোরশিক৷ পাহাড়ের কোলে তাঁবুর ভিতরে বসে তিনি শোনালেন তাদের জীবনকাহিনী৷

গোরশিক জানিয়েছেন, ছোটবেলায় সূর্যের আলো ছাড়া আলোর উৎস্য বলতে ছিল ছোট ছোট কিছু মোমবাতি৷ যদিও এখন তাদের মোমবাতির বদলে রয়েছে এখানে আলোর ব্যবস্থা৷ সোলার প্যানেলের সাহায্যে এখানে ঘরে ঘরে আলো পৌঁছে যায়৷ এছাড়া পশুদের চামড়া দিয়ে তৈরী হত এখানে বসবাসকারী বাসিন্দাদের জামাকাপড়৷ কিন্তু সেক্ষেত্রেও এসেছে বেশ কিছু পরিবর্তন৷ মঙ্গোলিয়ার তুষারাবৃত বনাঞ্চলগুলিতে মোট জনসংখ্যার পরিমাণ ৩০০৷ তারা বাস করেন কাঠের বাড়িতে৷
তবে তিনি জানিয়েছেন, পরিবর্তন ভালো কিন্তু বেশি পরিবর্তন দেশের সংস্কৃতিও নষ্ট করতে পারে৷
 
মঙ্গোলিয়ানদের প্রধান ভাষা সাতান৷ এই অঞ্চলের বাসিন্দারা হরিণদের সঙ্গেই বসবাস করেন৷ তারা তাদের প্রয়োজনে পূর্ব প্রান্ত থেকে পশ্চিম প্রান্তেও চলে আসেন মাঝে মধ্যে৷ ঋতুর পরিবর্তনের প্রভাব পরে তাদের জীবন যাপনেও৷

তবে এই গ্রামের ঐতিহ্য ধরে রাখার জন্য ওই গ্রামের বাসিন্দারা সরকারের সাহায্যও চেয়েছেন৷ তারা চাইছেন, তাদের গ্রামের যেন কোনো পরিবর্তন যেন না হয়৷ প্রকৃতির সৌন্দর্য ধরে রাখার জন্য গাছপালা কাটা যাতে বন্ধ করা হয় এবং পশু প্রাণী শিকার করা বন্ধ করার জন্য সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন ওই গ্রামের বাসিন্দারা৷ আর এর পাশাপাশি তারা জানিয়েছেন, বল্গাহরিণ এদের ঐতিহ্য, পরিচয়৷ তাই কোনোভাবে এদের যাতে নষ্ট করা না হয় তাই আবেদন জানানো হয়েছে সরকারের কাছে৷


বিডি প্রতিদিন/১৯ মার্চ ২০১৭/হিমেল


আপনার মন্তব্য