Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ১১:২১ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ১৪:৫২
হাতে ‘চাঁদ’ পেলেন মার্কিন নারী অধ্যাপক!
অনলাইন ডেস্ক
হাতে ‘চাঁদ’ পেলেন মার্কিন নারী অধ্যাপক!
সংগৃহীত ছবি
bd-pratidin

হাতে যদি কখনও সৌভাগ্যক্রমে চাঁদের পাথরের টুকরো পেয়ে গেলে কেমন অনুভূতি হবে আপনার। স্বপ্ন নয়, সত্যি হতে পারে এমন। অন্তত এক নারী তা সত্যি করে দেখিয়েছেন৷ শুধু চাঁদ নয়, তার হাতে এসেছে মঙ্গলগ্রহ থেকে ছিটকে আসা পাথরের টুকরোও৷

অবশ্য একে পাথরের টুকরো না বলে উল্কা পিন্ডের অংশ বললেই ভালো হবে৷ মহাকাশপ্রেমীদের কাছে এই সুযোগ যে স্বপ্নের মত, তা আর বলে দিতে হবে না৷ কারণ মহাকাশ বিজ্ঞানের খুঁটিনাটি যারা ভালবাসেন, তাদের কাছে এই ধরণের পাথরের টুকরো হাতে নেওয়া সৌভাগ্যের ব্যাপার৷

ঠিক এরকমই ঘটনা ঘটেছে জন হপকিনস ইউনিভার্সিটির ডিপার্টমেন্ট অফ আর্থ অ্যান্ড প্ল্যানেটারি সায়েন্সের অধ্যাপক সারা হোর্স্টের সাথে৷ সম্প্রতি নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে একটি ছবি পোস্ট করেছেন সারা৷ তার হাতে দেখা যাচ্ছে এরকমই দুটি পাথর৷ যা চাঁদের মাটির অংশ ও মঙ্গল গ্রহ থেকে ছিটকে আসা পাথর বলে জানিয়েছেন তিনি৷

একটি পাথর কালো রংয়ের৷ অপরটি ছাই ছাই রংয়ের৷ তিনি জানিয়েছেন কালো রংয়ের পাথরটি মঙ্গল গ্রহের৷ ছাই রংয়ের পাথরটি চাঁদের৷ এই ছবি পোস্ট হতেই সাড়া পড়ে যায় নেটিজেনদের মধ্যে৷
অনেকে প্রশ্ন করেন, কেউই যখন মঙ্গল গ্রহে নামতে পারেনি, তখন এই পাথর এল কোথা থেকে৷ আবার অনেকে প্রশ্ন করেছেন এটা যে মঙ্গল গ্রহেরই পাথর তা বুঝলেন কি করে৷ 

সব প্রশ্নেরই জবাব দিয়েছেন এই অধ্যাপক৷ তিনি জানান, মঙ্গল গ্রহের পাথরের বা মাটির যা চরিত্র, তার সঙ্গে হুবহু মিল আছে এই কালো পাথরটির৷ উল্কাপাতের সময় এটি পাওয়া গিয়েছে৷ অন্যদিকে, চাঁদের মাটির সঙ্গে একই উপাদান বিশিষ্ট ছাই রং পাথরটির উৎসও জানিয়েছেন সারা৷ এই দুটি পাথর হাতে নিয়ে সারার ছবিতে তার উচ্ছ্বাস ছিল চোখে পড়ার মতো৷


বিডি প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর ‌‌‌‌‌

আপনার মন্তব্য

up-arrow