Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২০ জুলাই, ২০১৮ ০৪:৩২ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২০ জুলাই, ২০১৮ ০৪:৪৩
চাকরির প্রথম দিনেই অফিসের 'সিইও'-কে চমক যুবকের!
অনলাইন ডেস্ক
চাকরির প্রথম দিনেই অফিসের 'সিইও'-কে চমক যুবকের!
সংগৃহীত ছবি

৩২ কিলোমিটার পায়ে হেঁটেই অফিস যান মার্কিন তরুণ ওয়াল্টার কার৷ তরুণ কর্মীর কাজের প্রতি এমন অদম্য উৎসাহ দেখে অবাক হয়ে যান সংস্থার সিইও ৷ গোটা ঘটনাটি শুনে হয়ে নিজের গাড়িই ওয়াল্টারকে গিফট হিসেবে দিয়ে দেন সংস্থার সিইও লুক মার্কলিন ৷

জানা যায়, দীর্ঘদিনের অপেক্ষার পর ওয়াল্টার অবশেষে স্বপ্নের চাকরিটা পেয়েছিলেন নিজের যোগ্যতায় ৷ কিন্তু শুরুতেই বাধা ৷ নতুন অফিসে যাওয়ার আগের রাতেই ঘটল অঘটন ৷ নিজের ব্যক্তিগত গাড়িটা পরীক্ষা করতে গিয়ে সে দেখে, গাড়ির ইঞ্জিনটি ব্রেক ডাউন হয়ে গেছে ৷ কিন্তু অফিসে তো যেতেই হবে ৷ কোনও উপায় নেই ৷ অবশেষে, গাড়ির আশা ছেড়ে পায়ে হাঁটা শুরু করেন তিনি৷ 

২০ বছরের সেই তরুণ ওয়াল্টার বার্মিংহামের বেলহপ সংস্থায় কাজ করেন ৷ গত বুধবার ছিল ওই সংস্থায় তার কাজের প্রথম দিন ৷ মঙ্গলবার রাতে ওয়াল্টার দেখেন, তার গাড়ির ইঞ্জিনটা খারাপ হয়ে গেছে ৷ চালু হচ্ছে না গাড়িটি ৷ এরপর সামান্য সময়ের জন্য বিচলিত হয়ে পড়েন ওয়াল্টার ৷ এরপর আর কোনও উপায় না দেখে আলাবামাতে, তার নিজের বাড়ি থেকে কর্মস্থল অবধি হাঁটতে শুরু করেন ওয়াল্টার ৷ যার দূরত্ব ছিল কমপক্ষে ৩২ কিলোমিটার ৷ 

এতটা পথ পায়ে হাঁটবেন কীভাবে তিনি ? সেই বিষয়ে কোনও ভাবনা চিন্তায় করেননি ৷ যেভাবেই হোক তাকে পৌঁছতে হবে ৷ এই ভাবনা মাথায় নিয়েই হাঁটতে শুরু করেন তিনি ৷ এই গোটা ঘটনাটি শোনার পরই চমকে যান সংস্থার সিইও লুক মার্কলিন ৷ কাজের প্রতি এহেন নিষ্ঠা দেখে চাকরির প্রথম দিনেই নিজের গাড়ি উপহার হিসেবে দিয়ে দেন লুক ৷

তবে, পুরা ৩২ কিলোমিটার তাঁকে পায়ে হেঁটে পৌঁছতে হয়নি তাকে ৷ ২০ কিলোমিটার পথ হাঁটার পরই মধ্যরাতে নিউ অরিলিয়ানসের কাছে ওয়াল্টারকে দেখে এগিয়ে আসে কয়েকজন পুলিশ কর্মী ৷ এরপর তারা গোটা ঘটনাটি জানার পর বাকি রাস্তাটা পুলিশ ভ্যানে করেই অফিসে পৌঁছান ওয়াল্টার ৷ এই ঘটনাটি মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ৷ টুইট করেন ইভাঙ্কা ট্রাম্পও ৷

 


বিডি প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর ‌

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow