Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ০৩:২৬ অনলাইন ভার্সন
ঘরের দরজা খুলেই সিংহের মুখোমুখি কৃষক, অতঃপর...!
অনলাইন ডেস্ক
ঘরের দরজা খুলেই সিংহের মুখোমুখি কৃষক, অতঃপর...!
সংগৃহীত ছবি

ঘর ভর্তি বাদাম৷ আর তার উপরেই দিব্যি বসে রয়েছে সিংহ৷ নিজের বাড়িতেই এমন দৃশ্য দেখে অবাক হয়ে যান কৃষক৷ সিংহের আগমনে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গেল ভারতের গুজরাটের আমরেলির পাটলা গ্রামে৷

খাবারের খোঁজেই জঙ্গল থেকে ওই এলাকায় বেরিয়ে এসেছিল পশুরাজ৷ আশ্রয় নেয় এক কৃষক পরিবারে৷ ওই কৃষক পরিবারে ১৫ জন সদস্য রয়েছেন৷ বাড়িতেই থাকে ২০টি গরু ও মহিষ৷ রাতের অন্ধকারে কৃষক পরিবারের সদস্যরাও ঘুমোচ্ছিলেন৷ বাড়ির সদর দরজা খোলা পেয়ে সেই সুযোগে ওই বাড়িটিতে ঢুকে পড়ে সিংহ৷ 

সামনেই খামার৷ চোখের সামনে গরু-মহিষ দেখে আর সামলে রাখতে পারেনি নিজেকে৷ ঢুকে গিয়েছিল খামারে৷ একটি মহিষকে খেয়ে ফেলে সেই সিংহ৷ কিন্তু তাতেও কেউ টের পাননি৷ ভর্তি পেটে আর ঘোরাফেরা করতে মন চায়নি পশুরাজের৷ মন চেয়েছিল বিশ্রাম নিতে৷ তাই ওই বাড়ির কোণের এক ঘরে আশ্রয় নেয় সে৷ 

ওই ঘরে বাদাম জড়ো করে রাখতেন কৃষক৷ সকালে ঘুম থেকে উঠে প্রতিদিনের মতো ওই ঘরে যান তিনি৷ সেখানে পশুরাজকে দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন৷ চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন৷ জড়ো হয়ে যান গ্রামবাসীরা৷ কোনক্রমে ওই ঘরের দরজা বন্ধ করে তিনি খবর দেন বন কর্মকর্তাদের।

খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছন বনদপ্তরের কর্মকর্তারা৷ ততক্ষণে ঘরের ভিতর বেশ তর্জন-গর্জন শুরু করেছে সে৷ কীভাবে পশুরাজকে বাগে আনা হবে, তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করেন তারা৷ অবশেষে ঘরের পিছনের দিকে দেওয়ালের একাংশ ভেঙে ফেলেন তারা৷ অনেক চেষ্টার পর সিংহকে বাগে আনেন বনকর্মীরা।

তারা জানান, ছ’দিন ধরেই এলাকায় সিংহটি ঘোরাফেরা করছিল৷ তাকে ধরতে না পারায় গ্রামবাসীদের মধ্যে ক্ষোভ জন্মাচ্ছিল৷ সিংহটিকে বাগে আনতে পেরে চিন্তামুক্ত হয়েছেন তারা৷ আপাতত সুস্থই রয়েছে পশুরাজ৷ খুব শীঘ্রই গির অভয়ারণ্যে ছেড়ে দেওয়া হবে তাকে৷


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর

আপনার মন্তব্য

up-arrow