Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ০৬:২০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ১০:৪৩
প্রকাশ্যে ভালবাসার নতুন রূপ, ‘হলোগ্রাম’কে বিয়ে করলো যুবক!
অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ্যে ভালবাসার নতুন রূপ, ‘হলোগ্রাম’কে বিয়ে করলো যুবক!
আকিহিকো কোন্ডো

ভালবাসার কতনা রূপ, কতনা তার বৈচিত্র৷ বলা হয় ভালবাসা কোনও বাঁধন মানেনা৷ তাই দিন পাল্টানোর সঙ্গে সঙ্গেই ভালবাসার সংজ্ঞাও পাল্টে গেছে৷ বিদেশে আবার কেউ পুতুলকে বিয়ে করছেন, কেউ আবার নিজের সঙ্গেই বিয়ে সেরে নিচ্ছেন৷ তবে এবার সামনে এল এমন ঘটনা যেখানে এক যুবক বিয়ে করেছেন একটি হলোগ্রামকে৷

এমন কাণ্ড ঘটানোয় সেই যুবক আকিহিকো কোন্ডোর মা ভীষণ রেগে গেছেন৷ তিনি টোকিওতে ছেলের বিয়ের নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে যাননি৷ ৩৫ বছর বয়সী মৃদুভাষী আকিহিকো জানিয়েছেন “মায়ের জন্য এটা কোন সেলিব্রেশনের বিষয় নয়৷” আকিহিকো ভালবেসেছেন এক ভারচুয়াল রিয়েলিটি সিঙ্গার হ্যাটসুন মিকুকে৷

যদিও এই বিয়েতে শুধু তার মা'ই শুধু নন, অনুপস্থিত ছিলেন তার সব আত্মীয়স্বজনরাও৷ ১৬ বছরের অ্যানিমেটেড গার্লের সঙ্গে বিয়ে মেনে নিতে পারেননি কেউই৷ কিন্তু পরিবারের অনিচ্ছাও দমাতে পারেনি আকিহিকোকে৷ তিনি এই বিয়েতে খরচ করেছেন দুই মিলিয়ন ইয়েন (১৭,৬০০ডলার)৷ টোকিও হলে বসে এই বিয়ের আসর৷

প্রায় চল্লিশ জন আমন্ত্রিত আসেন তার বিয়ের সাক্ষী হতে৷ যেখানে কনে ছিল বিড়ালের সাইজের একটি পুতুল৷ “আমি ওকে কখনও প্রতারিত করিনি৷ আমি সবসময় মিকুকেই ভালবেসেছি৷ সারাদিন ওর কথা ভাবি৷” জানায় আকিহিকো৷

গত মার্চ মাস থেকে আকিহিকো কোন্ডো ওই চলাফেরা করা কথাবলা মিকুর হলোগ্রামের সঙ্গে থাকে৷ এটি তার ২,৮০০ ডলারের ডেস্কটপ ডিভাইসে রয়েছে৷ “হ্যাটসুন মিকুর এই পুরো ভাবনাটাকেই আমার ভালো লাগে৷ আমি আমার বাড়িতেই মিকুর সঙ্গে বিয়ে করি৷” ক্যাপসুলের ভিতর জ্বলজ্বল করা ছবির দিকে তাকিয়ে একথা বলতে থাকে আকিহিকো৷

এই ঘটনার পরেও সে নিজেকে একজন সাধারণ মানুষ বলেই দাবি করেন৷ তার এই হলোগ্রামের স্ত্রী তাকে প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে তুলে দেয় ও তাকে অফিসে পাঠায়৷ আকিহিকো একটি স্কুল চালায়৷ সন্ধ্যায় যখন সে ফোন করে বলে যে সে ঘরে আসছে তার হলোগ্রাম স্ত্রী তার ঘরের আলো জ্বেলে দেয়৷ এরপর তার স্ত্রী তাকে জিজ্ঞাসা করে ঘুমোতে যাবে কখন৷

আকিহিকো কোন্ডো তার হলোগ্রাম স্ত্রীর পুতুল সংস্করণটি নিয়ে রাতে ঘুমায়৷ সেটিকেই বিয়ের আসরে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি৷ আংটি পরিয়ে পুরো প্রথা মেনে বিয়ে হয়৷ সেই আংটি পরানো রয়েছে ওই পুতুলের বাম হাতে৷ তিনি তার পুতুল স্ত্রী কে নিয়ে গয়নার দোকানে গিয়ে ওই আংটিটি কিনে দিয়েছিলেন৷ যদিও তার এই বিয়ের কোন আইনি বৈধতা নেই তবুও এসবের তোয়াক্কা করছেন না কোন্ডো৷ প্রেমে কে ই বা কোনদিন কাকে তোয়াক্কা করেছে?

 

বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর

আপনার মন্তব্য

up-arrow