Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারি, ২০১৫ ১১:৫৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৩০ নভেম্বর, -০০০১ ০০:০০
মুসলিম উম্মার শান্তি কামনায় শেষ হল বিশ্ব ইজতেমা
মুসলিম উম্মার শান্তি কামনায় শেষ হল বিশ্ব ইজতেমা

সৃষ্টিকর্তার উদ্দেশ্যে দু'হাত তুলে চোখের পানি ফেলল লাখো মুসল্লি। আমিন আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হল টঙ্গীর তুরাগ তীর। মুসলিম উম্মার শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে আজ বুধবার আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হল তিন দিনব্যাপী ৫০তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব।

মোনাজাত শুরু হয় বেলা ১১ টা ২০ মিনিটে। শেষ হয় ১১টা ৫৫ মিনিটে। আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন ভারতের মাওলানা সা’দ।

মোনাজাতে সারা বিশ্বের মুসলিম উম্মার শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। দু'চোখের পানি ফেলে সৃষ্টিকর্তার করুণা ভিক্ষা করেন লাখো মুসল্লি। সকল পাপ-তাপ থেকে মুক্তির জন্য দোয়া মহান আল্লাহ তায়ালার পানা চান মুসল্লিরা।

আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে হরতাল, অবরোধ, তীব্র শীত উপেক্ষা করে তুরাগ তীরে ছুটে আসেন লাখো মুসল্লি। দূর-দূরান্ত থেকে মুসল্লিরা বাস, ট্র্রাক, মিনিবাস, মাইক্রোবাস, ট্রেন, লঞ্চ ও ট্রলারে করে যতটুকু সম্ভব আসেন, এরপর শুরু হয় পায়ে হাঁটা। সবার লক্ষ্য টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতে শরিক হওয়া।

ইজতেমা ময়দানে স্থান না পেয়ে অনেকে ঢাকা-ময়মনসিংহ ও ময়দানের উত্তর পাশের কামারপাড়া সড়কে অবস্থান নেন। বিপুল সংখ্যক নারী মুসল্লিও মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমা ময়দানের আশপাশের সড়কে সকাল থেকে অবস্থান নেন।

এদিকে ইজতেমায় আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে যাওয়ার পথে আজ সকালে কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় ট্রেন থেকে পড়ে তিন মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। টঙ্গীর নতুনবাজার এলাকায় আরও এক মুসল্লি ট্রেনে কাটা পড়ে মারা যান।  
আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে নেয়া হয় বাড়তি নিরাপত্তা।

টঙ্গীর তুরাগ তীরে ৯ জানুয়ারি শুরু হয় এবারের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে তা শেষ হয় ১১ জানুয়ারি। মাঝে চার দিন বিরতি দিয়ে ১৬ জানুয়ারি শুরু হয় ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে আজ রবিবার তা শেষ হল।

বিডি-প্রতিদিন/১৮ জানুয়ারি ২০১৫/আহমেদ

আপনার মন্তব্য

up-arrow