Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৫ জুন, ২০১৬ ২০:২৭
সুন্দরবনে আগুন সন্ত্রাস; ৩৭ দিন পর ইলিশ আহরণের অনুমতি
শেখ আহ্সানুর করিম, বাগেরহাট:
সুন্দরবনে আগুন সন্ত্রাস; ৩৭ দিন পর ইলিশ আহরণের অনুমতি

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগে আগুন সন্ত্রাস বন্ধে সব ধরনের সম্পদ আহরণ নিষিদ্ধ ঘোষণার ৩৭ দিন পর শুধুমাত্র রূপালী ইলিশ মাছ শিকারে জেলেদের অনুমতি দিয়েছে বন বিভাগ। পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের নির্দেশের পর রবিবার সকাল থেকে চাঁদপাই ও শরণখোলা রেঞ্জের লোকালয় সন্নিহিত ষ্টেশন অফিসগুলো হতে নৌকা ও ট্রলারসহ নির্দিষ্ট পরিমান রাজস্ব দিয়ে ইলিশ মাছ আহরণের অনুমতিপত্র (বিএলসি) নেওয়া শুরু করেছে জেলেরা। তবে এক্ষেত্রে ইলিশ ছাড়া অন্য কোন মাছ শিকারসহ বনজ সম্পদের ক্ষতি করা যাবে না।

একইসঙ্গে সুন্দরবনে যাওয়া জেলেরা জাতিসংঘের ইউনেস্কো ঘোষিত তিনটি ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইড, ডলফিন রক্ষায় তিনটি এলাকার ৩১ দশমিক ৪ কিলোমিটার অভয়াশ্রম এবং সুন্দরবনে মাছের প্রজনন ও সংরক্ষণে সারা বছর জুড়ে মাছ আহরণ নিষিদ্ধ ১৮টি নদী-খালে ইলিশ আহরণ করা যাবে না। পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. সাইদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পূর্ব সুন্দরবন বিভাগ জানায়, চলতি বছরের ২৭ মার্চ, ১৩ এপ্রিল, ১৮ এপ্রিল ও ২৭ এপ্রিল পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর ষ্টেশন এলাকায় ৪ দফা নাশকতার আগুনে বন পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটে। পরিকল্পিত এইসব অগ্নিকান্ডের পর ২৮ এপ্রিল থেকে সুন্দরবনের শরণখোলা ও চাঁদপাই রেঞ্জে সকল ধরণের সম্পদ আহরণে পাস পারমিট বন্ধ করে দেওয়া হয়।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow