Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০১৬ ১৫:০৭
বাংলাদেশ-ভারত ট্রান্সশিপমেন্ট কার্যক্রম উদ্বোধন
অনলাইন ডেস্ক
বাংলাদেশ-ভারত ট্রান্সশিপমেন্ট কার্যক্রম উদ্বোধন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অাশুগঞ্জে ভারত-বাংলাদেশ প্রটোকল অন এনল্যান্ড ওয়াটার ট্রানজিট অ্যান্ড ট্রেড (পিআইডব্লিউটিটি) চুক্তির আওতায় ট্রান্সশিপমেন্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) দুপুরে অাশুগঞ্জ নদী বন্দরের জেটিতে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌমন্ত্রী শাহজাহান খান বলেন, নৌ-প্রটোকল (পিআইডব্লিউটিটি) চুক্তির আওতায় ট্রানজিটে বাংলাদেশ লাভবান হবে। বিপুল রাজস্ব পাবে সরকার। এখন যে শুল্ক ১৯২ টাকা, সেটা হয়তো এক সময় অাটশ' টাকা ছাড়িয়ে যাবে। ট্রানজিটের ফলে বিপুল কর্মসংস্থানের পাশাপাশি ট্রাক মালিক-শ্রমিক এবং জাহাজ মালিকরাও লাভবান হবেন।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু ও পায়রা সমুদ্র বন্দর বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারায় নতুন দিগন্ত উন্মোচিত করবে। এসব উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ করতে বিএনপি-জামায়াত নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতাচ্যুত করতে খালেদা জিয়া 'ইবলিশ'-এর সঙ্গেও হাত মেলাতে পারেন। তারা বিশ্বমানবতার শত্রু ইসরাইলের মোসাদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে।

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব অশোক মাধব রায়ের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিঅাইডব্লিউটিএ-এর চেয়ারম্যান কমোডর মোজাম্মেল হক।

স্বাগত বক্তব্যে তিনি বলেন, পণ্য পরিবহনে বাংলাদেশ টনপ্রতি ১৯২ টাকা ২২ পয়সা পাবে। এর মধ্যে শুধুমাত্র নিরাপত্তা খাতেই পাবে ৫০ টাকা করে। নিয়মিত ট্রানজিট হলে বাংলাদেশ লাভবান হবে, এতে অর্থনীতি বেগবান হবে। তাছাড়া ব্যাপক কর্মসংস্থানেরও সৃষ্টি হবে।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন-ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-তিন অাসনের সংসদ সদস্য উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, দুই অাসনের সংসদ সদস্য জিয়াউল হক মৃধা, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন ও পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান।

নিজেদের ভূখণ্ড ব্যবহার করতে দেওয়ায় বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়ে ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সম্পর্কটা হলো ঐতিহাসিক ও অাবেগঘন। এই নৌ-ট্রানজিট ত্রিপুরার জনগণের উপকারে অাসবে, তাদের জীবনযাত্রা সহজতর হবে।

এর অাগে ৩ জুন ভারত থেকে রওনা হওয়া এমভি নিউটেক-ছয় নামে একটি কার্গো জাহাজ ৭ জুন বাংলাদেশের সীমানায় প্রবেশ করে। বুধবার (১৫ জুন) বিকেল ৩টা ৪০ মিনিটে ট্রান্সশিপমেন্টের এক হাজার টন স্টিল সিট নিয়ে এটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ নৌবন্দরে পৌঁছে। প্রথমবারের মতো শুল্ক দেওয়ার মাধ্যমে এই জাহাজের পণ্য আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের রাজধানী আগরতলায় যাচ্ছে।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ




আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow