Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ, ২০১৭

প্রকাশ : ২৭ জুন, ২০১৬ ২২:০২
আপডেট :
সক্রিয় অজ্ঞান পার্টি, একদিনেই বরিশালে ৯ জন হাসপাতালে
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:
সক্রিয় অজ্ঞান পার্টি, একদিনেই বরিশালে ৯ জন হাসপাতালে

ঈদুল ফিতর সামনে রেখে ঢাকা-বরিশাল সড়ক ও নৌপথে বাস এবং লঞ্চে সক্রিয় হয়ে উঠেছে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। সোমবার (২৭জুন) বরিশালের বিভিন্ন রুটের লঞ্চে ও বাসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে অর্থসহ মূল্যবান মালামাল হারিয়েছেন নয়জন যাত্রী। শেষ পর্যন্ত তাদের ঠাঁই হয়েছে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।
এরা হলো পটুয়াখালীর মৌকরন গ্রামের আলী আকবর, তার ছেলে মনির, স্ত্রী মরজিনা বেগম, ঝালকাঠীর লোহা পট্টির ব্যবসায়ী ইমতিয়াজ হোসেন, রাজাপুরের কালু ব্যাপারী, বাকেরগঞ্জের রহমান হোসেন, মুলাদীর বাবুল হাওলাদার, চরকাউয়ার আল আমিন এবং অজ্ঞাতনামা একজন।

অসুস্থ রহমান হোসেন জানান, বরিশাল লঞ্চঘাটে নেমে রূপাতলী যাওয়ার পথে হঠাৎ ঘুমিয়ে পড়েন তিনি। পরে চোখ খোলার পর নিজেকে হাসপাতালে আবিস্কার করেন তিনি। এ সময় তিনি দেখতে পান তার সাথে থাকা তিনটি ব্যাগের একটিও নেই।

রাজাপুরের অসুস্থ কালু জানান, লঞ্চে তার পাশে এক লোক বসা ছিলো। ওই ব্যক্তি তার (কালু) কাছ থেকে পানি চেয়ে খায় এবং বোতলটি ফেরত দেন। ওই বোতলের পানি খাওয়ার পর কী হয়েছিল তা তার জানা নেই। চোখ মেলে তিনি নিজেকে হাসপাতালে দেখতে পান।

বরিশাল-পটুয়াখালী মিনি বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাওছার হোসেন শিপন বলেন, যাত্রীরা এখনো সচেতন হয়নি। তাদের অসচেতনতার কারনেই এমন ঘটনা ঘটছে। যাত্রা পথে অন্যের দেওয়া কিছু খাবো না এমন শ্লোগান সকলেরই জানা। কিন্তু যাত্রীরা সেটি ভুলে যায়। তাই বাস টার্মিনালে যাত্রীদের সতর্ক করতে মাইকিংয়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow