Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২০ জুলাই, ২০১৬ ১৯:৩৯
আপডেট : ২০ জুলাই, ২০১৬ ১৯:৪০
প্রাথমিক স্কুলের সংস্কারে শিক্ষা অধিদপ্তরের গড়িমসিতে ক্ষোভ
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রাথমিক স্কুলের সংস্কারে শিক্ষা অধিদপ্তরের গড়িমসিতে ক্ষোভ
ফাইল ছবি

প্রাথমিক স্কুলের ভবন নির্মাণ ও সংস্কারে বাজেট না থাকার দোহাই দিয়ে শিক্ষা অধিদপ্তরের গড়িমসি, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অবহেলা এবং অনেক ক্ষেত্রে এলজিইডি মন্ত্রণালয়ের প্রকল্পের অধীনে বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমে নিম্নমানের কাজ করানোর অভিযোগে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সংসদীয় কমিটি। একইসঙ্গে ১ লাখ ২২ হাজার ১৭৬টি প্রাথমিক স্কুলের ভবন নির্মাণ, সংস্কার ও মেরামতের জন্য  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে পৃথক  গণশিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠার সুপারিশ করেছে কমিটি। শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়ন মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার করার জন্য উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার পদ সংখ্যা বাড়ানোর সুপারিশ করে কমিটি। এছাড়া প্রাথমিক শিক্ষা প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (পিটিআই) বিহীন ১২টি জেলা সদরে অবিলম্বে পিটিআই ভবন স্থাপনের সুপারিশ করে কমিটি।
সংসদ ভবনে আজ অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এসব সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মো. মোতাহার হোসেন। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ ইলিয়াছ উম্মে রাজিয়া কাজল বৈঠকে অংশ নেন।   মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. নজরুল ইসলাম খানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

কমিটি সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে জানানো হয় যে দেশে ২৪ ক্যাটাগরিতে ১ লাখ ২২ হাজার ১৭৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে সরকারি বিদ্যালয় ৩৭ হাজার ৬৭২টি। নতুন করে রেজিস্টার্ড আরও ২৬ হাজার ১৯৩টিকে সরকারিকরণ করা হয়। এসব প্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মাণসহ নানা ধরনের উন্নয়ন কাজ করতে হয় বছরজুড়ে। কিন্তু শিক্ষা অধিদফতরের তত্ত্বাবধানেই উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করতে হয় বলে বছরের পর বছর ঘুরতে হয়। সময়ের কাজ সময়ে হয় না।

বিডি-প্রতিদিন/২০ জুলাই ২০১৬/শরীফ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow