Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:১৮ অনলাইন ভার্সন
বুড়িমারী সীমান্ত থেকে বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ
লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
বুড়িমারী সীমান্ত থেকে বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ
প্রতীকী ছবি

লালমনিরহাটের বুড়িমারী সীমান্ত থেকে মোখলেছুর রহমান (৩০) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ধরে নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে। বুধবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টার দিকে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী সীমান্তের ৮৪২ নং মূল সীমানা পিলারের অভ্যন্তর থেকে তাকে নিয়ে যায় বিএসএফ।

মোখলেছুর রহমান পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী এলাকার আফজাল হোসেনের ছেলে।

সীমান্ত সূত্রে জানা যায়, মোখলেছুর রহমান বুড়িমারী সীমান্তের ৮৪২ নং মূল সীমানা পিলারের অভ্যন্তরে ঘোরাফেরা করছিল। এ সময় ভারতের চ্যাংড়াবান্ধা ৬১ বিএসএফের টহল দলের সদস্যরা তাকে ধরে নিয়ে যায়। এদিকে বিজিবি জানায়, মুরারী মোহন নামের এক ব্যক্তি গত ৫-৬ মাস আগে পাসপোর্ট ছাড়া  সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে যান। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে দালাল চক্রের মাধ্যমে ভারতের কুচবিহার জেলার মেখলিগঞ্জ মহকুমার সীমান্ত পথে দহগ্রামে প্রবেশের চেষ্টাকালে বিএসএফের হাতে আটক হন। পরে বিএসএফ তাকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর জখম করে মেইন পিলার ১০ এর কাছে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়দের খবরে বিজিবি সদস্যরা তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে দহগ্রাম হাসপাতালে, পরে পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। গুরুতর জখম বাংলাদেশি মুরারী মোহন গুপ্ত ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার সাভার এলাকার মৃত দেবেন্দ্র মোহন গুপ্তের ছেলে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) লালমনিরহাট ১৫ এর পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আহমেদ বজলুর রহমান হায়াতী উভয় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

পতাকা বৈঠকের আহবান করা হয়েছে।

 

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow