Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৩:৩২ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৪:৫০
গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তে হাইকোর্টের ছয় মাসের স্থগিতাদেশ
অনলাইন ডেস্ক
গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তে হাইকোর্টের ছয় মাসের স্থগিতাদেশ
ফাইল ছবি

দুই ধাপে গ্যাসের দাম বাড়ানোর যে গণবিজ্ঞপ্তি বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন দিয়েছে, তার দ্বিতীয় ধাপের কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে 'আইনের ব্যত্যয় ঘটিয়ে' দেওয়া ওই গণবিজ্ঞপ্তি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান ও সচিবকে চার সপ্তাহের মধ্যে এই রুলের জবাব দিতে হবে।

ভোক্তা সংগঠন ক্যাবের এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুরু করে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চে মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। ক্যাবের পক্ষে প্রকৌশলী মোবাশ্বের হোসেন সোমবার হাইকোর্টে রিট আবেদনটি করেন। সেখানে গ্যাসের দাম বাড়ানো-সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তির কার্যকারিতার ওপর স্থগিতাদেশ চাওয়া হয়। আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ সাইফুল আলম।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গৃহস্থালিতে ও গাড়িতে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম বাড়িয়ে গণবিজ্ঞপ্তি দেয়।

সেখানে বলা হয়, আবাসিক গ্রাহকদের আগামী ১ মার্চ থেকে এক চুলার জন্য মাসে ৭৫০ টাকা এবং দুই চুলার জন্য ৮০০ টাকা দিতে হবে। আর দ্বিতীয় ধাপে ১ জুন থেকে এক চুলার জন্য মাসিক বিল ৯০০ টাকা এবং দুই চুলার জন্য ৯৫০ টাকা হবে।  
পাশাপাশি যানবাহনে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাসের (সিএনজি) দাম ১ মার্চ থেকে প্রতি ঘনমিটারে ৩৮ টাকা এবং ১ জুন থেকে ৪০ টাকা হবে। পাশাপাশি বিদ্যুৎ উৎপাদন, সার, শিল্প ও বাণিজ্যক খাতেও গ্যাসের দাম দুই ধাপে ৫ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়া হয় ওই গণবিজ্ঞপ্তিতে।

ক্যাবের আইনজীবী সাইফুল বলেন, "এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন এক নোটিশে দুইবার দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে, যেটা অবৈধ। তা ছাড়া 'এনার্জি রেগুলেটারি কমিশন আইন ২০০৪' অনুযায়ী গণশুনানির পর ৯০ দিনের মধ্যে দাম ঘোষণা করার কথা। কিন্তু কর্তৃপক্ষ যেটা করলেন, সেটা কোনো ব্যবস্থাপনার মধ্যে পড়ে না। "

এ ছাড়া বিইআরসি ট্যাক্স-ভ্যাট যুক্ত করে জনগণের কাছ থেকে বাড়তি টাকা নিলেও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন না নিয়েই তা করেছে বলে দাবি এই আইনজীবীর।  এসব বিষয় উল্লেখ করে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জবাব চেয়ে রবিবার বিইআরসি চেয়ারম্যানকে আইনি নোটিশ পাঠানো হলেও তা জবাব না পাওয়ায় আদালতে আবেদন করা হয়েছে বলে জানান তিনি। ভোক্তা অধিকারকর্মীরা ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও ব্যবসায়ী সংগঠন গ্যাসের দাম বৃদ্ধির এই সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছে। বাম দলগুলো মঙ্গলবার ঢাকায় আধাবেলা হরতালও পালন করেছে।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

up-arrow