Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ১২ আগস্ট, ২০১৭ ১৮:১৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
'সাড়ে আট বছরে শিক্ষার্থীর সংখ্যা আড়াই গুণ বেড়েছে'
অনলাইন ডেস্ক
'সাড়ে আট বছরে শিক্ষার্থীর সংখ্যা আড়াই গুণ বেড়েছে'
ফাইল ছবি

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, গত সাড়ে আট বছরে শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় আড়াই গুণ বেড়েছে। ফলে নতুন অবকাঠামো নির্মাণের প্রয়োজনীয়তাও অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে।

এজন্য ২০১৮ সালের মধ্যে মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ ,মাদরাসা, কলেজ ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালগুলোতে সাড়ে ১৯ হাজার ভবন নির্মাণ সম্পন্ন হবে।  

আজ শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উন্নয়ন কাজ নিয়ে মাঠ পর্যায়ের প্রকৌশলীদের সাথে মতবিনিময় এবং নবনিয়োগপ্রাপ্ত প্রকৌশলীদের মাঝে মোটর সাইকেল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের আরও সততা ও দক্ষতার সাথে কাজ সম্পাদন করার নির্দেশনা দিয়ে নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘চলতি অর্থ-বছরের সকল কাজ আগামী মে মাসের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে। কাজের ক্ষেত্রে কোনো গাফিলতি করা যাবে না। শিক্ষা অবকাঠামো নির্মাণে কোনো দুর্নীতি সহ্য করা হবে না। এক্ষেত্রে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছি। ’ 

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠনের পর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর (ইইডি) সারাদেশে অবকাঠামো নির্মাণে ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ করে। এ উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত আছে এবং নতুন নতুন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।  

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ হানজালার সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মহিউদ্দিন খান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, ইইডি’র পরিচালক খালেদা আক্তার এবং আইডিইবি’র প্রচার ও গণসংযোগ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বক্তৃতা করেন।


পরে মন্ত্রী ইইডি’র নবনিয়োগপ্রাপ্ত ৩০০ প্রকৌশলীর মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে মোটর সাইকেলের চাবি হস্তান্তর করেন।  

বিডি প্রতিদিন/১২ আগস্ট ২০১৭/এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

up-arrow