Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ২১:০৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ২১:১৩
অনিয়মে জড়িত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ
নিজস্ব প্রতিবেদক
অনিয়মে জড়িত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ
ফাইল ছবি

রাজধানীর ৭০৯টি বাড়ি পরিদর্শন করে তার মধ্যে ৫৩৯টি বাড়ি নির্মাণে অনিয়ম পেয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। রাউজকের চেয়ারম্যান এসব ভবন বা বাড়ি নির্মাণের সঙ্গে রাউজকের কোনো কর্মকর্তা জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। সংসদীয় কমিটি সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ প্রক্রিয়ার পাশাপাশি নতুন ভাবে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলা রোধ করতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে। 

সংসদ ভবনে আজ অনুষ্ঠিত গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২৪তম বৈঠকের কার্যপত্র পর্যালোচনা করে এ সুপারিশ করা হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মো. দবিরুল ইসলাম। গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, মো. জাহিদ আহসান রাসেল, সাধন চন্দ্র মজুমদার, এ.কে.এম ফজলুল হক, আবু সালেহ মোহাম্মদ সাঈদ (দুলাল), নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী এবং নূরজাহান বেগম বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে গত ফেব্রুয়ারি মাসের জরীপ প্রতিবেদন বলা হয়, ঢাকার শহরের ৮টি জোনে তারা ৭০৯টি বাড়ি পরিদর্শনে গিয়ে এই চিত্র দেখতে পান।  এসব বাড়ির মালিকরা কোনো না কোনো ভাবে অনিয়ম করেছেন। গত বছরের ডিসেম্বর মাসে পরিদর্শনে গিয়েও ৭৭১টি বাড়ির মধ্যে ৬১৬ টি বাড়ি তৈরির অনিয়ম পান তারা। এরমধ্যে ১৮টি বাড়ির  অনুমোদিত অংশ উচ্ছেদ করা হয়েছে। ২৮৭টি বাড়ির মালিককে নোটিশ করা হয়েছে। ৮২টি বাড়ির মালিককে দ্বিতীয়বার কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়া হয়েছে। ১৬২টি বাড়ির মালিককে চূড়ান্ত নোটিশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া টাস্কফোর্সের মাধ্যমে চলতি মাসে ১৩টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদসহ ৭ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।  

সংসদ সচিবালয় জানায়, বৈঠকে ন্যাম ভবন থেকে সংসদ ভবনে আসা-যাওয়ার জন্য আন্ডারপাস নির্মাণ কার্যক্রম ত্বরান্বিত করার সুপারিশ করেছে। বৈঠকে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকারসহ সংশ্লিষ্ট সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow