Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ জুন, ২০১৬ ০২:০৯
‘জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে’
নিজস্ব প্রতিবেদক

জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধ সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হয়েছে। গতকাল সেগুনবাগিচার মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর মিলনায়তনে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন ও সাম্প্রদায়িকতা-জঙ্গিবাদ বিরোধী মঞ্চের যৌথ উদ্যোগে ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকীকরণ এবং জঙ্গিবাদের বিপদ : সমাধানের পথ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এ আহ্বান জানান বক্তারা। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিয়াউদ্দিন তারেক আলী। আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি ডা. সারওয়ার আলী, বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. নুর মোহাম্মদ তালুকদার, শিক্ষক নেতা অধ্যাপক ড. আজিজুর রহমান, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমেদ প্রমুখ। সভায় মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের প্রেসিডিয়াম সদস্য ডা. অসিত বরণ রায়।

মূলপ্রবন্ধে বলা হয়, বাংলাদেশে জঙ্গিবাদি কর্মকাণ্ড নব্বই দশক থেকে শুরু হয়েছে। কয়েক বছর ধরে, বিশেষ করে শাহবাগ আন্দোলনের পর থেকে কথিত কয়েকটি ইসলামী জঙ্গি সংগঠন দেশে জবাই করে মানুষ হত্যার এক অদ্ভুত সংস্কৃতি সমাজে প্রায় প্রতিষ্ঠিত করে ফেলেছে। এর ব্যাপকতা এতটাই বিস্তার লাভ করেছে যে মনে হচ্ছে আধুনিক চিন্তা ধারণ করেন এমন মানুষরা প্রতি মাসেই তিন-চারজন করে খুন হতে থাকবেন। তিন বছরে এমন অনেক হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে এবং এর মধ্যে বিচার হয়েছে একটির। রাজীব, অভিজিৎ, নিলয়সহ ব্লগাররা ছাড়াও খ্রিস্টান ধর্মযাজক, হিন্দু এবং বৌদ্ধ পুরোহিত, ইসলাম ধর্ম থেকে ধর্মান্তরিত জনগন, সমকামী সমর্থক এমনকি বিদেশি নাগরিকদের তারা ‘আল্লাহু আকবর’ ধ্বনি দিয়ে জবাই করে চলছে। এসব হত্যাকাণ্ড বন্ধে ও জড়িতদের বিচারের আওতায় আনাসহ তিন দফা দাবি জানানো হয় সভায়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow