Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ৯ জুন, ২০১৬ ২৩:৩৭
ক্ষমতাসীনদের ইঙ্গিতেই গুপ্তহত্যা : ফখরুল
নিজস্ব প্রতিবেদক

গুপ্তহত্যাসহ সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডগুলো ক্ষমতাসীনদের ইঙ্গিতেই ঘটছে বলে পাল্টা অভিযোগ করেছে বিএনপি। প্রধানমন্ত্রীর অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডগুলো ক্ষমতাসীনদের ইঙ্গিতেই ঘটেছে। হত্যাকাণ্ড ঘটে যাওয়ার পরও নিরপেক্ষ তদন্ত করে প্রকৃত অপরাধীদের এখনো খুঁজে বের করতে পারেনি সরকার। অধিকাংশ হত্যাকাণ্ড প্রকাশ্য দিবালোকে হয়েছে। এ ধরনের নারকীয় ঘটনার ন্যূনতম হদিস বের করতে না পেরে চরম হতাশ হয়ে বিরোধী দলের ওপর দায় চাপাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে গুপ্তহত্যার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের প্রতি ইঙ্গিত করে দুটি রাজনৈতিক দলের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ আনেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, হেড অব দ্য গভর্নমেন্ট (সরকারপ্রধান) হিসেবে তার কাছে এ বিষয়ে সব তথ্য আছে। এ বক্তব্যের এক দিন পরই গতকাল রাজধানীর নয়াপল্টন কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিক্রিয়া জানায় বিএনপি। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গুপ্তহত্যার ঘটনাগুলোতে সরকারের সংশ্লিষ্টতার পাল্টা অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, নিখুঁতভাবে সংঘটিত এসব হত্যাকাণ্ডের পর হত্যাকারীদের লাপাত্তা হয়ে যাওয়ার ঘটনা রাষ্ট্রের ক্ষমতাসীনদের ইঙ্গিত না থাকলে কোনোভাবেই সম্ভব হতে পারে না। প্রধানমন্ত্রীর কাছে সব তথ্য থাকলে সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি, নাটোরের উপজেলা চেয়ারম্যান নূর হোসেন বাবুসহ অন্যান্য হত্যাকাণ্ডের কেন বিচার হচ্ছে না— এ প্রশ্নও তোলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রধানমন্ত্রী যা বলেছেন তা অনৈতিক, রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক ও উদ্দেশ্যমূলক। হত্যাকারীদের শনাক্ত না করে বিরোধী দলের ওপর দায় চাপিয়ে ফায়দা হাসিল করাই ক্ষমতাসীনদের মূল উদ্দেশ্য। বিরোধী দলের ওপর উদ্দেশ্যমূলকভাবে দোষ চাপালে বিষয়গুলো অন্য দিকে চলে যাবে। আজ পর্যন্ত কোনো ঘটনারই সুষ্ঠু তদন্ত জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয়নি। যাদের গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে, তাদের সেভাবে কখনই চিহ্নিত করতে দেখা যায়নি। তারাই যে প্রকৃত হত্যাকারী বা ঘটনার জন্য দায়ী, তা জানা যায়নি।

তিনি বলেন, এ ধরনের সংবাদ সম্মেলনগুলোয় তার (প্রধানমন্ত্রী) কিছু লিখিত বক্তব্য থাকে, তা-ই তিনি আওড়ে যান। গতকাল তিনি সেটিই পাঠ করেছেন। বিরোধী দল বিএনপিকে এ ধরনের ঘটনার সঙ্গে জড়িত করার উদ্দেশ্য কী? উদ্দেশ্য একটাই, বিএনপি উদারপন্থি, গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল এবং বিএনপি এ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য লড়াই করে সফল হয়েছে এবং গণতন্ত্রের জন্য এখনো সংগ্রাম করে চলেছে। তাই বিএনপিকে যেভাবেই হোক নির্মূল করা প্রয়োজন। সে লক্ষ্যে তারা প্রথম থেকেই কাজ করে আসছে।




up-arrow