Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ১২ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১২ জুন, ২০১৬ ০১:৪৭
‘ইসলামী ব্যাংকিং ব্যবস্থা আর্থিক অনিয়ম ঠেকাতে পারে’
নিজস্ব প্রতিবেদক

আর্থিক খাতে বিভিন্ন ধরনের সংকট, সমস্যা মোকাবিলা করে ইসলামী ব্যাংকিং ব্যবস্থা এখন বাংলাদেশে শক্তিশালী। আর্থিক খাতের অনিয়ম ঠেকাতে ইসলামী ব্যাংকিং ব্যবস্থা একমাত্র সমাধান।

ব্যাংকিং ব্যবস্থাকে ইসলামভিত্তিক করলে দেশের সব নাগরিক লাভবান হবে। রাষ্ট্রের প্রবৃদ্ধিও বৃদ্ধি পাবে। গতকাল রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বিজিএমইএ ভবনে ইসলামী অর্থনীতি ও ব্যাংকিংবিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। বাংলাদেশের ইসলামী ব্যাংকগুলোর সমন্বয়ে গঠিত ‘সেন্ট্রাল শরিয়াহ বোর্ড ফর ইসলামিক ব্যাংকস অব বাংলাদেশ’ (সিএসবিআইবি) এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। প্রতিষ্ঠানের সেক্রেটারি জেনারেল এ কিউ এম ছফিউল্লাহ আরিফের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান এম আযীযুল হক, এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ড. মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া, উবায়দুর রহমান খান নদভি প্রমুখ।

এক্সিম ব্যাংকের এমডি মোহম্মদ হায়দার আলী মিয়া বলেন, সারা পৃথিবীতে ১৫ হাজার ইসলামী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান আছে। যার মোট মূলধন ২২ হাজার বিলিয়ন ডলার। ইসলামী অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ২৬ শতাংশ। পৃথিবীর কোথাও ইসলামী ব্যাংক দেউলিয়া হয়নি। এর একমাত্র কারণ আর্থিক ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা ও সুদির্নিষ্ট কাঠামো। তিনি বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে ২৪টি ইসলামী ব্যাংক রয়েছে। আরও ৮টি প্রতিষ্ঠান সাধারণ ব্যাংকিং থেকে ইসলামী ব্যাংকিংয়ে রূপান্তরের জন্য আবেদন করেছে।

শরীয়াহ বোর্ডের নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান এম আযীযুল হক বলেন, ইসলামিক ব্যাংকিংয়ে কখনো কখনো ভুল ত্রুটি হয়ে যায়। শরীয়াহ বোর্ড এটা শোধরানোর জন্যই গঠন করা হয়েছে এবং আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছি সত্যিকার ইসলামী অর্থনীতি বাংলাদেশে স্টাবলিস্টমেন্টের জন্যে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow