Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ১৩ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ জুন, ২০১৬ ০১:৪১
হাজারীবাগের ট্যানারি স্থানান্তরে সময় বাড়ছে
নিজস্ব প্রতিবেদক

হাজারীবাগের ট্যানারি স্থানান্তরে সময় বাড়ছে। গতকাল বিসিক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ত্রিপক্ষীয় সভায় বাংলাদেশ ট্যানারি অ্যাসোসিয়েশন কমপক্ষে ছয় মাস সময় বাড়ানোর দাবি জানায়।

ট্যানারি মালিকরা বলেন, কোনোভাবেই আগামী ৩০ জুনের মধ্যে রাজধানীর হাজারীবাগ থেকে সাভার চামড়া শিল্পনগরীতে স্থানান্তর করা যাবে না ট্যানারি। ৩০ জুন শেষ হতে যাচ্ছে চামড়া শিল্পনগরীর প্রকল্পের মেয়াদ।

সভায় জানানো হয়, সাভারে ২০০ একর জমিতে ২০৫টি প্লটে হাজারীবাগের ১৫৫ ট্যানারি স্থানান্তরের কথা। এর মধ্যে ১২টি ছাড়া সব ট্যানারির অবকাঠামো উন্নয়নের কাজ চলছে। এসব কাজ শেষ করেই হাজারীবাগ থেকে যন্ত্রপাতি স্থানান্তর প্রক্রিয়া শুরু হবে। একই সঙ্গে স্থাপন করা হবে নতুন যন্ত্রপাতি। এ পর্যন্ত ১০টির মতো ট্যানারি যন্ত্রপাতি স্থাপন প্রক্রিয়া শুরু করেছে। অনেক ট্যানারি স্থাপনের জন্য নতুন যন্ত্রপাতি আমদানি প্রক্রিয়ায় রয়েছে। ১৭টি ট্যানারি বিদ্যুৎ সংযোগ চেয়ে আবেদন করেছে। এ ছাড়া ৩০ জুনের মধ্যে ২০টির মতো ট্যানারি স্থানান্তর হতে পারে। অন্যান্য ট্যানারির কাজও দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। তবে ট্যানারির কাজ শেষ না হলেও চীনা প্রতিষ্ঠানের সিইটিপি নির্মাণ হলে প্রকল্প শেষ করা হবে। এ ছাড়া কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগারের (সিইটিপি) কাঠামো নির্মাণ কাজ জুনের মধ্যে শেষ হবে। পাশাপাশি দুটি মডিউলের ইলেকট্রোমেকানিক্যালের কাজ জুনের মধ্যে শেষ করে চালু করা হবে। এ দুটি মডিউল চালু হলে ৪৮ থেকে ৫০টি ট্যানারির বর্জ্য পরিশোধন করা সম্ভব হবে। পরবর্তী দুই মাসের মধ্যে বাকি দুটি মডিউলের কাজ শেষ হবে। এ ছাড়া বর্জ্য বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রক্রিয়া (এসপিজিএস) স্থাপনের জন্য মেয়াদ বাড়াতে হবে। এ জন্য গতকালের ত্রিপক্ষীয় সভার আলোকে প্রকল্পের মেয়াদ আরেক দফা বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow