Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • চাটাইয়ে মুড়িয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান!
  • কেরানীগঞ্জে বাচ্চু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ৭ জনের যাবজ্জীবন
  • ৩ মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদন
  • হালদা নদীর পাড়ের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ
  • আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা
  • কাদেরের বক্তব্যে একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী
  • কলারোয়া সীমান্তে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
  • বিএনপি নির্বাচনে না এলেও গণতন্ত্র অব্যাহত থাকবে: কাদের
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৪ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৪ জুন, ২০১৬ ০১:৩১
‘হানিফ লীগের’ হুমকি
কুষ্টিয়ার সাংবাদিক নিরাপত্তা চাইলেন আইজির কাছে
নিজস্ব প্রতিবেদক

কুষ্টিয়ায় কর্মরত কালের কণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক তারিকুল হক তারিক পুলিশ মহাপরিদর্শকের কাছে নিরাপত্তা চেয়ে আবেদন করেছেন। কুষ্টিয়ার পুলিশ কর্মকর্তারা জিডি গ্রহণে অস্বীকৃতি জানালে গতকাল তিনি নিরাপত্তাহীনতার কথা জানিয়ে পুলিশ সদর দফতরে আবেদন জানান। এদিকে কুষ্টিয়া শহরে প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীরা মহড়া দিলেও পুলিশ কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছে না। সাংবাদিক তারিকুল হক তারিক জানান, এলাকায় ফিরতে চাইলে টেলিফোনে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার প্রলয় চিসিম নিরাপত্তার বিষয়ে আশ্বস্ত করেন। কিন্তু পুলিশ পরে নিরাপত্তার জন্য জিডি গ্রহণেও সম্মত হয়নি। গতকাল দুপুরে নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি নিয়ে গেলে তা গ্রহণ করেননি সদর থানার ওসি শাহাবুদ্দিন চৌধুরী। ঊর্ধ্বতনদের নির্দেশ ছাড়া তিনি জিডি গ্রহণ করতে পারবেন না বলে জানান। এ অবস্থায় পুলিশ সদর দফতরে গিয়ে নিরাপত্তা চেয়ে আবেদন জমা দিতে হয়েছে। দৈনিক কালের কণ্ঠে গত ৭ জুন ‘কুষ্টিয়ায় রাজত্ব হানিফ লীগের’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের জেরে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা কুষ্টিয়ায় কালের কণ্ঠ অফিসে হামলা চালায়। স্থানীয় সংসদ সদস্য মাহবুব-উল আলম হানিফের এপিএস টুটুলসহ কয়েকজন প্রাণনাশের হুমকি দেয় তারিকুল হক তারিককে। যুবলীগের নেতা জেড এম সম্রাটের নেতৃত্বে কয়েকজন অস্ত্রধারী শহরের বিভিন্ন স্থানে তারিককে খুঁজতে থাকে। তারা কুষ্টিয়ায় কালের কণ্ঠ পত্রিকা প্রবেশে বাধা দিতে থাকে। দুই দিন পরে কুষ্টিয়ার পরিস্থিতি দৃশ্যমান শান্ত হলেও সাংবাদিক তারিককে খুঁজে ফিরছে হানিফের অনুসারীরা। গত ১১ জুন তারিকের নানা বাড়িতে গিয়ে কয়েকজন জানতে চেয়েছে তার অবস্থান। এর বাইরেও আত্মীয়স্বজনের কাছে ফোন করে সন্ত্রাসীরা জানতে চাইছে—তারিক কোথায়? এ অবস্থায় তারিকের পরিবারের সদস্যরা উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় আছেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow