Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৭ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ১৭ জুন, ২০১৬ ০০:০৭
বাংলাদেশের প্রশংসায় জাতিসংঘের বিশেষ দূত সাদারল্যান্ড
প্রতিদিন ডেস্ক

সমসাময়িক অভিবাসন কেন্দ্রিক বৈশ্বিক ইস্যুতে বাংলাদেশের গৃহীত কর্মপরিকল্পনার প্রশংসা করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূত পিটার সাদারল্যান্ড। তিনি বলেন, ‘অভিবাসীদের অধিকার সংরক্ষণ এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার আলোকে বৈশ্বিক অভিবাসন ব্যবস্থাপনাকে আরও নিরাপদ-নিয়মতান্ত্রিক-নিয়মিত ও দায়িত্বশীলকরণ করতে হবে।’ বিশ্বব্যাপী অভিবাসন সংকটের স্থায়ী সমাধানের মধ্যেই টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনের সোপান বলেও মন্তব্য করেন আন্তর্জাতিক অভিবাসন সম্পর্কিত জাতিসংঘের বিশেষ দূত। খবর এনআরবি নিউজের।

নিউইয়র্কে বাংলাদেশ মিশনের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক অভিবাসন বিষয়ে ১৫ জুন বুধবার জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ প্রতিনিধি পিটার সাদারল্যান্ডের সঙ্গে ‘ফ্রেন্ডস অব মাইগ্রেশন’ গ্রুপের রাষ্ট্রদূত ও স্থায়ী প্রতিনিধিদের এক বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ গ্রুপের অন্যতম কো-চেয়ার হিসেবে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন এই সভার আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন। অপরাপর সদস্যরাও বাংলাদেশের নেতৃত্বে এই গ্রুপের মাধ্যমে ধনী ও গরিব দেশের অভিবাসন সংকট অবসানে সুদূর প্রসারি কর্ম-কৌশল গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। অভিবাসীদের মৌলিক অধিকার সুরক্ষায় উন্নত বিশ্বের প্রতি আরও মানবিক হওয়ার আহ্বান উচ্চারিত হয় এ সভা থেকে।

পিটার সাদারল্যান্ড বলেন, ‘আসছে ১৯ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে অনুষ্ঠিত হবে দেশে উদ্বাস্তু ও অভিবাসন ইস্যুতে উচ্চপর্যায়ের সম্মেলন। সেখান থেকে যুগোপযোগী এবং সর্বজনীন একটি কর্মকৌশল গ্রহণের সম্ভাবনা রয়েছে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশসহ ৩৩ দেশের সমন্বয়ে নবগঠিত ‘ফ্রেন্ডস অব মাইগ্রেশন’র গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।’ প্রসঙ্গত, উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশ হচ্ছে ‘গ্লোবাল ফোরাম ফরম মাইগ্রেশন’-এর চেয়ার। এ দায়িত্বে অভিবাসন বিষয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের কূটনৈতিক প্রচেষ্টারও প্রশংসা করেন পিটার সাদারল্যান্ড। 




এই পাতার আরো খবর
up-arrow