Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ১৯ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ১৮ জুন, ২০১৬ ২২:৫০
নারায়ণগঞ্জে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় শামীম ওসমান এমপি
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

যানজট নিরসনে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় নেমেছেন সংসদ সদস্য শামীম ওসমান (নারায়ণগঞ্জ-৪)। গতকাল দুপুরে তিনি ট্রাফিক আইল্যান্ডে দাঁড়িয়ে হাত নেড়ে, আবার কখনো গাড়ির কাছে ছুটে গিয়ে চালকদের প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেন। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের নিয়ে তার এই তত্পরতায় মুহূর্তেই চাষাঢ়া এলাকার রাস্তা ফাঁকা হয়ে যায়। রাস্তায় নেমে যানজট নিয়ন্ত্রণ করছেন এমপি, দৃশ্যটা সাধারণ মানুষের মধ্যে কৌতূহল সৃষ্টি করে। অনেকেই দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে তার গণমুখী কাজটি দেখেন। শামীম ওসমান সাংবাদিকদের বলেন, পুরো শহরের ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে আছেন মাত্র ছয়জন ট্রাফিক পুলিশ। তাই শুধু পুলিশের ওপর নির্ভর না করে নিজেদেরও পাল্টাতে হবে। তিনি বলেন, সিটি করপোরেশন জনগণের ট্যাক্স নিচ্ছে, কিন্তু যানজট নিরসনে দায়িত্ব এড়িয়ে যাবে এটা হতে পারে না। রমজানে রোজাদার মানুষ তীব্র যানজটে ভুগছে, তাই আমি রাস্তায় নেমেছি। পাশাপাশি ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরাও আমার নির্দেশে যানজট নিরসনে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে কাজ করছে। তিনি আরও বলেন, এ বছর জানুয়ারিতে যানজট নিরসনে রাস্তায় নেমে তিন দিনের ক্যাম্পেইন করলাম। শহরকে যানজটমুক্ত করতে ছয়টি অস্থায়ী ও চারটি স্থায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তাব দিলাম। দুঃখের বিষয়, সিটি করপোরেশন সাড়া দেয়নি।

ট্রাফিক পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার বদরুল আলম মোল্লা জানান, প্রতিদিন যানজট নিরসন করতে গিয়ে আমাদের হিমশিম খেতে হয়। মাত্র ছয়জন ট্রাফিক সদস্য নিয়ে এত বড় শহরের যানজট নিরসন করা আমাদের পক্ষে কঠিন। কোনো সংগঠন বা সংস্থা আমাদের পাশে থাকলে সেটা ইজি হয়ে যায়।




এই পাতার আরো খবর
up-arrow