Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ২০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ জুন, ২০১৬ ০০:১০
গুলিতে আফ্রিকায় বাংলাদেশি নিহত
মাদারীপুর প্রতিনিধি

দক্ষিণ আফ্রিকায় দুর্বৃত্তদের গুলিতে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বেপারিপাড়ার মিরাজ মুন্সী (২৭) মারা গেছেন। আজ বাংলাদেশে লাশ আসবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বেপারিপাড়া এলাকার বেলাল মুন্সীর ছেলে মিরাজ মুন্সী ৮ মাস আগে ৮ লাখ টাকা ঋণ করে জীবিকার সন্ধানে দক্ষিণ আফ্রিকায় যান। ওই দেশের দারমান শহরের একটি মুদির দোকানে কর্মচারী হিসেবে কাজ পান। শুক্রবার জুমার নামাজের পর প্রতিদিনের মতো তিনি আবার দোকানে যান। পরে ওই দেশের সময় বিকাল সাড়ে ৫টা আর বাংলাদেশ সময় রাত ৯টার দিকে একটি কৃষ্ণাঙ্গ দুর্বৃত্তদল ডাকাতির উদ্দেশ্যে দোকানে আসে। এ সময় দুর্বৃত্তদের গুলিতে মিরাজ মুন্সী মারা যান।

দক্ষিণ আফ্রিকায় একসঙ্গে থাকা নিহত মিরাজ মুন্সীর মামাতো ভাই মো. মামুন মোবাইল ফোনে ওই দিন রাতেই তার মৃত্যুর খবর বাংলাদেশে তার পরিবারের কাছে জানান।

খবর পাওয়ার পর থেকেই নিহতের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। এলাকাবাসী নিহতের পরিবারকে সান্ত্বনা দেওয়ার জন্য তার বাড়িতে ভিড় করছে।

এ ব্যাপারে নিহতের বাবা বেলাল মুন্সী বলেন, অনেক দেনা করে আমার ছেলেকে বিদেশ পাঠিয়েছিলাম। একটু ভালো থাকার জন্য বিদেশে গেলেও ওইখানের সন্ত্রাসীরা আমার ছেলেকে গুলি করে মেরে ফেলেছে। ভালো সুস্থ ছেলে আমার হাসতে হাসতে বিদেশে গেল আর এখন লাশ হয়ে দেশে আসবে। আমরা এর বিচার চাই।

তিনি আরও জানান, আমার ছেলের মৃত্যুর ব্যাপারটি আফ্রিকা থেকে আমার ছেলের মামাতো ভাই মামুন নিশ্চিত করেছে। আজ লাশ আসবে বলে মামুন জানিয়েছে।

এ সময় তার মা ছালেহা বেগম বলেন, ঘটনার দিন জুমার নামাজের আগে মিরাজ আমাকে ফোন করে বলেছিল, মা নামাজ শেষ করে পরে তোমার সঙ্গে কথা বলব। আমার ছেলে আর ফোন দেয়নি। আর কোনো দিন আমার সঙ্গে কথা হবে না। ওই দেশের সন্ত্রাসীদের গুলিতে আমার ছেলে মারা গেছে। আমি এ দেশের সরকারের মাধ্যমে ওই দেশের সরকারের কাছে এই হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবি জানাই।

 

এই পাতার আরো খবর
up-arrow