Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ২০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ জুন, ২০১৬ ০০:১২
অপরাধীদের পাকড়াও করতে
লালমনিরহাট সীমান্তে বিজিবি বিএসএফের রেডএলার্ট
লালমনিরহাট প্রতিনিধি

পলাতক জঙ্গি ও দেশের অভ্যন্তরে সংঘটিত অপরাধ কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত অপরাধীদের ধরতে লালমনিরহাট জেলার ১৪৫ কিলোমিটার সীমান্ত পয়েন্টে বিজিবির পক্ষ থেকে শনিবার সন্ধ্যা থেকে রেডএলার্ট জারি করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা থেকে জেলার পাটগ্রাম পৌর শহরের উপশহর বাইপাস চৌরাস্তা মোড়ে, বুড়িমারী জিরোপয়েন্ট, দহগ্রাম বিওপিসহ অন্যান্য স্পর্শকাতর স্থানে বিজিবি চেকপোস্ট বসিয়েছে বলে প্রশাসনের দায়িত্বশীল সূত্র জানায়। প্রশাসনের উচ্চমহলের নির্দেশে চেকপোস্ট বসিয়ে গাড়ি চেকিংসহ লোকজনের গতিবিধি পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। পাটগ্রাম ও দহগ্রাম বিজিবি সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গোয়েন্দা তথ্যমতে পলাতক ৬ জঙ্গি ধরিয়ে দিলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরস্কার দেওয়া হবে। পলাতক ২ জঙ্গি পাটগ্রাম সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এমন খবরের ভিত্তিতে থানা পুলিশও বিভিন্ন জায়গায় কয়েক দফা অভিযান চালিয়েছে। পাটগ্রাম থানা ওসি অবনী শংকর কর এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন। পুলিশের গোপন সংবাদ সোর্সের মাধ্যমে ফাঁস হয়ে যাওয়ায় অভিযান ব্যর্থ হয়। বুড়িমারী ইমিগ্রেশনের সহকারী দারোগা সাইদুল ইসলাম জানান, পত্রিকায় প্রকাশিত পলাতক ৬ জঙ্গি শরিফ, সেলিম, সিফাত, রাজু, সিহাব ও সাজ্জাদের ছবি সরবরাহ করা হয়েছে। এ ছাড়া অন্য কোনো তথ্য কিংবা আদেশ ইমিগ্রেশনে দেওয়া হয়নি। পুলিশ ও বিজিবি সূত্র মতে, ভারত-বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তোলে জঙ্গি সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে সীমান্তে আত্মগোপনে থেকে সুযোগ বুঝে ভারতে চলে যায়। সীমান্ত পয়েন্টগুলোতে বিজিবির কড়াকড়ি পাহারা দেখে তিনবিঘা করিডোর, চ্যাংড়াবান্ধা সীমান্ত পয়েন্টগুলোতে আগের দুজনের স্থলে চারজন এবং চারজনের স্থলে আটজন বিএসএফ টহল দিচ্ছে বলে জানা যায়। জঙ্গি পারাপারে দুদেশের সীমান্ত বাহিনী বিজিবি-বিএসএফ সদস্যরা সর্বদা সতর্ক রয়েছে বলে পাটগ্রাম থানা পুলিশ জানিয়েছে। এ ব্যাপারে লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল আহম্মেদ বজলুর রহমান হায়াতী বলেন, লালমনিরহাট জেলার সীমান্তজুড়ে বিজিবিকে সার্বক্ষণিক সতর্ক রাখা হয়েছে। বিজিবি-বিএসএফের যৌথ টহল জোরদার করা হয়েছে।

 অপরাধীদের ধরতে পুরো সীমান্তজুড়ে শনিবার সন্ধ্যা থেকে জারি করা হয়েছে রেড এলার্ট। যাতে দেশের অভ্যন্তরে অপকর্ম করে অপরাধীরা সীমান্ত পেরিয়ে যেতে না পারে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow