Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ২১ জুন, ২০১৬ ০২:২৩
সংসদে বাণিজ্যমন্ত্রী
প্রতি বছরই রপ্তানি বাণিজ্য বৃদ্ধি পাচ্ছে
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, প্রতি বছরই রপ্তানি বাণিজ্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে বাণিজ্য ঘাটতি কমছে। চলতি অর্থবছরের মে পর্যন্ত ৩০ দশমিক ৬৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানি করা হয়েছে। এপ্রিল পর্যন্ত ঘাটতির পরিমাণ ছিল ৫ হাজার ২৩৯ দশমিক ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। সংসদে বাজেট অধিবেশনে গতকাল টেবিলে উত্থাপিত নুরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান। বিগত কয়েক অর্থবছরের পরিসংখ্যান তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে রপ্তানির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়ে ৩১ হাজার ২০৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে। একই অর্থবছরে ঘাটতির পরিমাণ ৯ হাজার ৭২৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। চলতি অর্থবছরে (২০১৫-১৬) এপ্রিল পর্যন্ত ঘাটতির পরিমাণ ছিল ৫ হাজার ২৩৯ দশমিক ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

নিজাম উদ্দিন হাজারীর অন্য এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, চলতি অর্থবছরের ১ জুলাই থেকে মে ২০১৬ পর্যন্ত ৩০ দশমিক ৬৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানি করা হয়েছে। গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় যা ৮ দশমিক ৯৫ শতাংশ বেশি।

এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, বর্তমানে শাক-সবজি বহির্বিশ্বে রপ্তানি করা হচ্ছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জুলাই-এপ্রিল পর্যন্ত এ খাতে রপ্তানি আয়ের পরিমাণ ৮৭ দশমিক ৩৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বেগম ওয়াসিকা আয়শা খানের অন্য এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে মোট রপ্তানি আয় ২৫ হাজার ৪৯১ দশমিক ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০১৫-১৬ অর্থবছরের ১১ মাস (জুলাই-মে) পর্যন্ত রপ্তানি আয় অর্জিত হয়েছে ২৩ হাজার ৭৬২ দশমিক ৯৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

৭৯০টি ফ্যাক্টরি বন্ধ রয়েছে : জাতীয় উদ্যোগ, অ্যাকর্ড এবং অ্যালায়েন্সের তত্ত্বাবধানে রপ্তানিমুখী ৩৯টিসহ মোট ৭৯০টি কারখানা বন্ধ রয়েছে বলে সংসদে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। জাতীয় পার্টির এমপি এ কে এম মাঈদুল ইসলামের টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, দেশে বর্তমানে ৫ হাজার ১৯০টি গার্মেন্ট ফ্যাক্টরি রয়েছে। তার মধ্যে ৪ হাজার ৮৩৪টি রপ্তানিমুখী ফ্যাক্টরি। এসব ফ্যাক্টরি তাদের সক্ষমতা অনুযায়ী উৎপাদন চালিয়ে যাচ্ছে। জাতীয় উদ্যোগ, অ্যাকর্ড এবং অ্যালায়েন্সের তত্ত্বাবধানে রপ্তানিমুখী ৩ হাজার ৭৪৬টি গার্মেন্ট ফ্যাক্টরির অগ্নি, বৈদ্যুতিক ও কারখানা ভবনের প্রাথমিক নিরাপত্তা যাচাই সম্পন্ন হয়েছে। যাচাইকালে নিরাপত্তার কারণে ৪২টি আংশিক এবং অন্যান্য কারণে ৩৯টি রপ্তানিমুখীসহ ৭৯০টি ফ্যাক্টরি বন্ধ রয়েছে।

বেগম হাজেরা খাতুন এমপির প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধিতে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপগুলো তুলে ধরে বলেন, সরকারের গৃহীত রেমিট্যান্স-বান্ধব এসব পদক্ষেপের ফলে রেমিট্যান্সপ্রাপ্তি উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়ে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ১৫ হাজার ৩১৬ দশমিক ৯১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যমতে, এপ্রিল ২০১৬ পর্যন্ত দেশে বর্তমান বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ প্রায় ২৯ দশমিক ১১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।




up-arrow