Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ২২ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২২ জুন, ২০১৬ ০১:৪৩
অস্ত্র-গুলি উদ্ধারের কিনারা হয়নি, তদন্ত কমিটি
নিজস্ব প্রতিবেদক

উত্তরা ১৬ নম্বর সেক্টর দিয়াবাড়ির খাল থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গুলি উদ্ধারের ঘটনায় কিনারা করতে পারেনি পুলিশ। তিন দিন পার হলেও খোঁজ পাওয়া যায়নি খালে ফেলে যাওয়া আগ্নেয়াস্ত্র বহন করা কালো রঙের সেই পাজেরো গাড়ির।

যদিও এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে তুরাগ থানায় দুটি জিডি করা হয়েছে। জিডি দুটির তদন্ত করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সূত্র বলছে, ঘটনার একমাত্র প্রত্যেক্ষদর্শী পুলিশ কনস্টেবলকে নিয়ে গাড়ি শনাক্তে সম্ভাব্য বেশ কয়েকটি জায়গায় অভিযান চালানো হয়েছে। তবে গতকাল পর্যন্ত নম্বরবিহীন কালো রঙের ওই পাজেরো গাড়ি শনাক্ত করা যায়নি। দুর্বৃত্তরা কৌশলে ওই জিপ ব্যবহার করে আগ্নেয়াস্ত্রগুলো ফেলে গেছে। এর আগে সোমবার ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো: আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, এটি কোনো সাধারণ সন্ত্রাসীর কাজ নয়। এগুলো মজুদের সঙ্গে দেশি-বিদেশি চক্র জড়িত।

এদিকে, অস্ত্র-গুলি উদ্ধারের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ডিএমপি। কমিটিতে ডিবি’র ডিসি (উত্তর) শেখ নাজমুল আলমকে প্রধান করা হয়েছে। এতে সদস্য সচিব করা হয়েছে ডিবি’র সিরিয়াস ক্রাইম বিভাগের প্রধান খন্দকার নুরুন্নবীকে। এছাড়াও কমিটিতে রয়েছেন- এডিসি আশিকুর রহমান, মাহফুজুল ইসলাম, গোলাম মোস্তফা রাসেল ও এসি সুমিত জোয়ারদার। এঘটনায় করা জিডি’র তদন্ত করবেন ডিবি’র স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের এডিসি মোহাম্মদ ছানোয়ার হোসেন।

গত ১৮ ও ১৯ জুন উত্তরার ওই খাল থেকে ৮টি ট্রাভেল ব্যাগ ও একটি বাক্সের মধ্যে ৯৫টি চায়নিজ ৭ দশমিক ৬২ (মি.মি) বোরের পিস্তল, দুটি দেশি ৭ দশমিক ৬২ (মি.মি) বোরের পিস্তল, ১৮৯টি ৭ দশমিক ৬৫ (মি.মি) পিস্তলের ম্যাগজিন, ১০টি গ্লোপ পিস্তলের ম্যাগজিন, ২৯৫টি এসএমজি ম্যাগজিন, ২২০ রাউন্ড ৭ দশমিক ৬৫ (মি.মি) বোরের পিস্তলের গুলি, ৮৪০ রাউন্ড ৯ এমএম পিস্তলের গুলি, ১০টি বেয়নেট, গুলি তৈরির ১০৪টি ছাঁচবোড, ১৯ অস্ত্রের বাট পরিষ্কার করার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow