Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৮ জুন, ২০১৬ ০৩:২৮
সাগরে প্রথমবারের মতো গ্যাস অনুসন্ধানে বাপেক্স
নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বাপেক্স প্রথমবারের মতো সাগরে গ্যাসকূপ খনন করতে যাচ্ছে। বঙ্গোপসাগরের মগনামায় ১৬ নম্বর গ্যাস ক্ষেত্রে আপাতত একটি কূপ খনন করবে বাপেক্স।

বাপেক্সের সঙ্গে যৌথভাবে এই কূপ খনন করবে অস্ট্রেলিয়ার কোম্পানি সান্তোস। এজন্য সান্তোসের সঙ্গে দায়বদ্ধতার চুক্তি করা হয়েছে। গতকাল বাপেক্সের প্রধান কার্যালয়ে উভয় প্রতিষ্ঠান এই চুক্তির দলিল হস্তান্তর করে। চুক্তিতে বাপেক্সের সচিব মোহাম্মদ আলী ও সান্তোসের প্রেসিডেন্ট এন্ড্রো ডি গ্যারিস স্বাক্ষর করেন। আশা করা হচ্ছে আগামী মাসে এ বিষয়ে চূড়ান্ত চুক্তি করা হবে। আগামী জানুয়ারি বা ফেব্রুয়ারি মাসে যৌথভাবে কাজ শুরু হবে। কূপ খনন করতে প্রায় ১১ কোটি ৮০ লাখ ২০ হাজার ডলার খরচ ধরা হয়েছে।   চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাপেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আতিকুজ্জামানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সান্তোসের আঞ্চলিক পরিচালক মাহমুদুল করিম প্রমুখ।

বাপেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আতিকুজ্জামান বলেন, এই কূপের ৪৯ ভাগ বাপেক্স এবং ৫১ ভাগ সান্তোসের। অর্থাৎ যা খরচ হবে তার ৪৯ ভাগ বাপেক্স। গ্যাস পাওয়া গেলেও তার ৪৯ ভাগ বাপেক্স পাবে। মগনামায় যাবতীয় জরিপ এরই মধ্যে শেষ করেছে সান্তোস। এতে খরচ হয়েছে ৯ কোটি ২৩ লাখ ডলার। এর ১৭ শতাংশ বাপেক্সকে দিতে হবে। আর কূপ খরচের ৪৯ শতাংশ বাপেক্সকে দিতে হবে। বাপেক্স, গ্যাস উন্নয়ন তহবিল থেকে এ টাকা পাবে। কূপ খননের পর গ্যাস না পেলে বাপেক্সকে এ টাকা শোধ করতে হবে না।   তবে গ্যাস পেলে নিয়ম অনুযায়ী দুই শতাংশ সুদে এই টাকা শোধ করতে হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow