Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ জুন, ২০১৬ ০২:২৬
শাবকসহ বাঘিনীর আনাগোনা বাড়ছে সুন্দরবনে
মোস্তফা কাজল

বেশ কবছর ধরেই সুন্দরবনের চারপাশে বাঘের দেখা মিলছিল না। কদিন ধরেই দুই শাবকসহ এক বাঘিনীর আনাগোনায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা  রেঞ্জে। সুন্দরবনের বন কর্মকর্তারা বিষয়টিকে আশাব্যঞ্জক বলেই মনে করছেন। গতকাল নতুন অতিথি বাঘিনী ও দুই শাবকের প্রতিবেদন পাঠিয়েছে বন সদর দফতরের প্রধান বন সংরক্ষকের কাছে। প্রতিবেদনটি পাঠিয়েছে সুন্দরবনের পশ্চিম বন বিভাগ।  

বন বিভাগ জানায়, সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যাতত্ত্ব নিয়ে চলছে বহুমুখী জরিপ ও গবেষণা। ঠিক এ সময় তিনদিন আগে সুন্দরবন এলাকার কৌতূহলী বন কর্মিদের চোখে ধরা দিল দুই শাবকসহ এক বাঘিনী। সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের শ্যামনগর মুন্সিগঞ্জ ফরেস্ট অফিসসংলগ্ন চুনা নদীর দক্ষিণ পাড়ে (ফরেস্ট অফিসের পরিত্যক্ত বিল্ডিং ভবনের পাশে) তিন-চার দিন ধরে বাঘিনীটিকে শাবকসহ অগভীর বনের মধ্যে ঘোরাফেরা করতে দেখা  গেছে। মুন্সিগঞ্জ, কলবাড়ী, বুড়িগোয়ালিনীসহ তত্সংলগ্ন এলাকার একাধিক জেলে এসব তথ্য জানিয়েছে বন বিভাগের অফিসে। পরে বন বিভাগ থেকে বিশেষ কায়দায় শাবকসহ বাঘিনীর ছবি তোলা হয়। প্রত্যক্ষদর্শী ও বন কর্মি বক্কার আলী ও কার্তিক মণ্ডল বন বিভাগকে সর্বপ্রথম বাঘিনীসহ বাঘ শাবক দেখার খবর দেয়। এরপর ফরেস্টার মহবত আলী বিভাগীয় বন কর্মকর্তাকে লিখিতভাবে জানান। তিনি গতকাল প্রধান বন সংরক্ষকের কাছে পাঠানো প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন কয়েক দিন ধরেই একটি বাঘ ও দুটি বাঘের বাচ্চাকে ঘুরতে দেখেছেন।   বন বিভাগের সহকারী বন কর্মকর্তা শোয়েব খান বলেন, গত কয়েক বছর ধরে সুন্দরবনে বাঘের কোনো খোঁজ ছিল না। চুনা নদীর ওপারে বাঘিনীকে কখনো রাতে কখনো ভোরে আবার কখনো ভরদুপুরে ঘুরে বেড়াতে দেখা  গেছে। বহুদিন পরে বাঘ দেখতে  পেয়েছি।

up-arrow