Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : রবিবার, ৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩ জুলাই, ২০১৬ ০০:২২
উঠে গেল হজের শর্ট প্যাকেজ
মোস্তফা কাজল

অবশেষে উঠে গেল হজের শর্ট প্যাকেজ প্রোগ্রাম। ফলে এবারের হজ কার্যক্রমে ‘সবার পরে সৌদি আরব যাওয়া ও সবার আগে ফিরে আসার’ শর্ট প্যাকেজ থাকছে না। শর্ট প্যাকেজ প্রোগ্রামের আওতায় প্রতি বছর দুই শতাধিক ভিআইপি মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, সচিব, ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা হজের সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে ১৫ দিনের মধ্যে দেশে ফেরার সুযোগ পাচ্ছিলেন। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানান, এবার সেই শর্ট প্যাকেজ থাকবে না। সৌদি সরকারের সঙ্গে হজ চুক্তিতেও এ ধরনের কোনো ব্যবস্থা রাখা হয়নি। এ ছাড়া সৌদি সরকার তাদের অভ্যন্তরীণ নিয়মের কারণে যে যাত্রী যে বিমানে যে আসনে যাবেন সেই আসনে ফিরে আসবেন— এমন নির্দেশনা জারি করেছে। এ কারণে এবার শর্ট প্যাকেজ রাখা হবে না।

এর আগে বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেননের সভাপতিত্বে ২০১৬ সালের হজযাত্রী পরিবহন কার্যক্রম সুষ্ঠু, ফলপ্রসূ ও নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে সভায় শর্ট প্যাকেজের বিষয়টি আলোচনা করা হয়। আলোচনার পর সৌদি সরকারকে প্রস্তাব পাঠানো হয়। ওই সভার প্রস্তাবনায় বলা হয়েছিল, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের জন্য হজে সাধারণ প্যাকেজের পাশাপাশি আনুষঙ্গিক ট্যাক্স ও চার্জ বাদ দিয়ে বিজনেস ক্লাসে ভ্রমণের জন্য হজযাত্রী প্রতি ২ হাজার ৫০০ ডলার বিমান ভাড়ায় ২০ থেকে ২২ দিনের সংক্ষিপ্ত হজ প্যাকেজ চালুর জন্য প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন নিয়ে বিমান কর্তৃপক্ষ ও সৌদি আরবকে অনুরোধ করা হয়। কয়েক দিন আগে সৌদি আরবের ধর্ম মন্ত্রণালয় বাংলাদেশের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের শর্ট প্যাকেজ প্রস্তাব নাকচ করে দেয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow