Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ১১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জুলাই, ২০১৬ ০০:২৬
প্রথমদিনেই কর্মমুখর সচিবালয়
নিজস্ব প্রতিবেদক

টানা ৯ দিন ছুটির পর সপ্তাহের প্রথমদিন গতকাল খুলেছে সরকারি অফিস-আদালত ব্যাংক-বীমা শেয়ারবাজার। প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয় প্রথমদিনেই ছিল সরগরম।

অন্য বছরের তুলনায় এবার উপস্থিতিও ছিল বেশি। সচিবালয়ের অভ্যন্তরে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ঘুরে দেখা গেছে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি প্রায় স্বাভাবিক। তবে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ও কোলাকুলিতে প্রথম কর্মদিবসে সচিবালয়ে ছিল ঈদের আমেজ। তবে কাজও করেছেন মন্ত্রী-সচিবসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। অর্থ-বাণিজ্য, স্বরাষ্ট্র, স্বাস্থ্য, শ্রম, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়সহ প্রায় পুরো সচিবালয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ের পাশাপাশি ছিলেন কর্মমুখর। এসব মন্ত্রণালয়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকও হয়েছে। মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী ও সচিবরা নিজ নিজ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ও করেছেন। এদিকে, ব্যাংক, শেয়ারবাজারেও লেনদেন শুরু হয়েছে গতকাল। ঈদের ছুটির পর প্রথম কর্মদিবসে সচিবালয়ে ছুটির আমেজ থাকে, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি থাকে কম। কিন্তু এবার ঈদের আগে দীর্ঘ ছুটি থাকায় এ পরিস্থিতি হয়নি। প্রথম কর্মদিবসে বেশিরভাগ মন্ত্রীই সচিবালয়ে অফিস করেছেন। সকাল সাড়ে ১০টার মধ্যেই সচিবালয়ে আসেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন, পানিসম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুসহ আরও অনেকেই।

গত ৭ জুলাই মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর পালিত হয়েছে। সরকারি চাকরিজীবীরা ১ জুলাই থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত টানা ৯ দিনের ছুটি ভোগ করেছেন। গতকাল সকাল থেকেই সচিবালয় চত্বর, ভবনগুলোর বারান্দা, সিঁড়ি, লিফট, কক্ষে কক্ষে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দেখা গেছে। ভেদাভেদ ভুলে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। সচিবালয়ের গাড়ি রাখার জায়গাগুলো অন্যান্য সময়ের মতো গাড়িতে পূর্ণ ছিল। তবে দর্শনার্থী কিছুটা কম ছিল। শুধু শুভেচ্ছা বিনিময়ই নয় মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী সচিবদের দফতরে মিষ্টি মুখও করানো হয়েছে শুভেচ্ছা বিনিময় করতে আসাদের।

এদিকে, ঈদের ছুটির পর গতকাল খুলেছে দেশের ব্যাংক-বীমা ও শেয়ারবাজার। বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ঘুরে দেখা গেছে ঈদের আমেজের চিত্র। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আশাব্যঞ্জক উপস্থিতি ছিল। তবে সবাই ছিলেন ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ে ব্যস্ত। তবে নিচ তলার কাউন্টারে লেনদেনও হয়েছে দু-একটি। এ ছাড়া মতিঝিলে সোনালী, জনতা, অগ্রণী, এনসিসি, সোস্যাল ইসলামী ও পূবালীসহ কয়েকটি ব্যাংকের প্রধান ও শাখা অফিস ঘুরে একই চিত্র দেখা গেছে। ঢিলেঢালা লেনদেন হয়েছে। আমদানি-রপ্তানির এলসিও খোলা হয়েছে। তবে অন্য স্বাভাবিক দিনের তুলনায় লেনদেন ও এলসি খোলার সংখ্যা ছিল কম। ঢাকা ও চট্টগ্রাম শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয়েছে। তবে বিনিয়োগকারী কম থাকায় এবং বাজারে মন্দাবস্থা বিরাজ করায় প্রথম কার্যদিবসে গতকাল উভয় শেয়ারবাজারে লেনদেন ও সূচক কমেছে।

up-arrow