Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : সোমবার, ১৮ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৭ জুলাই, ২০১৬ ২৩:২০
দেশে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩১ লাখ ৯ হাজার ৯৬৭
নিজস্ব প্রতিবেদক

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সংসদে জানিয়েছেন, দেশে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৩১ লাখ ৯ হাজার ৯৬৭টি। যার মধ্যে আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১২ হাজার ৭৯২টি এবং হাইকোর্ট বিভাগে ৩ লাখ ৯৯ হাজার ৩০৩টি।

এ ছাড়া জেলা পর্যায়ে সহকারী জজ আদালত হতে জেলা ও দায়রা জজ আদালতসহ সব প্রকার ট্রাইব্যুনালে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১৮ লাখ ৯ হাজার ৪৬১টি এবং জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম/ সিজেএম) আদালতসমূহে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ৮ লাখ ৮৮ হাজার ৪১১টি। সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইনের (পটুয়াখালী-৩) প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী সংসদকে এ তথ্য জানান। এ হিসাব ২০১৬ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত বলে উল্লেখ করেন তিনি। মন্ত্রী আরও জানান, সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে প্রধান বিচারপতিসহ মোট ৯ জন বিচারপতি এবং হাইকোর্ট বিভাগে ৯১ জন বিচারপতি কর্মরত রয়েছেন। তবে নিম্ন আদালতের বিভিন্ন পর্যায়ে ২৮১ জন বিচারকের পদ শূন্য রয়েছে। জেলা ও দায়রা জজ/সমপর্যায়ের বিচারকের মোট পদ ২২১টি। বর্তমানে কর্মরত ২০৬ জন, বিচারপতির পদ শূন্য ১৫টি। মন্ত্রীর দেওয়া তথ্যানুযায়ী, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা/সমপর্যায়ের বিচারকদের মোট পদ ২১০টি, কর্মরত ২০৯ জন, শূন্যপদ ১টি। যুগ্ম জেলা ও দায়রা/সমপর্যায়ের বিচারকের  মোট পদ ৩০৪টি, কর্মরত ২৮৮ জন, শূন্য পদ ১৬টি। সহকারী জজ/সিনিয়র সহকারী জজের মোট পদ ৩৬১টি, কর্মরত ২৯৭ জন, শূন্য পদ রয়েছে ৬৪টি। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের পদ ৪৭৮টি। কর্মরত ২৯৮ জন। শূন্য পদ ১৮০টি এবং মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটর পদ ৫১টি হলেও বর্তমানে সেখানে কর্মরত ৪৬ জন, শূন্য পদ রয়েছে ৫টি। তিনি বলেন, মামলাজট কমাতে বিচারক নিয়োগ, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মামলা নিষ্পত্তি, প্রতিটি জেলায় কেস ম্যানেজমেন্ট কমিটি গঠন, ডিজিটাল কজলিস্ট চালু, আর্থিক অসচ্ছল ব্যক্তিদের সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদানসহ নানাবিধ কার্যক্রম চালু করা হয়েছে।

আশা করি দ্রুত এসব মামলার নিষ্পত্তি হবে।

up-arrow