Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৫ জুলাই, ২০১৬ ০০:০৯
খালেদা জেলে গেলে মানুষ ঘরে বসে চিনা বাদাম খাবে না : ফখরুল
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের রায় প্রমাণ করে সরকার বিএনপির বুকের মধ্যে হাত দিয়েছে। এরপর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া থেকে শুরু করে সবাইকে সাজা দেওয়া হতে পারে। আমাদের ঘরে বসে থাকার সময় নেই। ’ চেয়ারপারসনকে সাজা দেওয়া হতে পারে এমন আশঙ্কা করে সরকারকে হুঁশিয়ার করেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, ‘তিনবারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে জেলে নিয়ে গেলে মানুষ ঘরে বসে চীনা বাদাম খাবে না। ’৫২ কিংবা ’৭১ সালে মানুষ চীনা বাদাম খায়নি। বুকের রক্ত দিয়ে অধিকার আদায় করেছে। ’

গতকাল বিকালে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাজার প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর বিএনপি আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ওই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়। বর্তমান সময়কে সংকটময় উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, একদিকে জাতিকে ধ্বংস করার জন্য, দেশকে আন্তর্জাতিকভাবে যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত করার জন্য জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ ও সন্ত্রাসের কথা আনা হচ্ছে। অন্যদিকে বহুদলীয় গণতন্ত্র ধ্বংস করার জন্য প্রধান বিরোধী দলকে ধ্বংস করার নীলনকশা বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। তারেক রহমানের মামলার রায় সে নীলনকশার শেষ পর্যায়।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য উদ্ধৃত করে মির্জা ফখরুল বলেন, সমগ্র বিশ্ব বাংলাদেশের সঙ্গে আছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা স্বৈরাচারের সঙ্গে থাকবে না। বন্ধু দেশগুলোর উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশ বন্ধুত্ব চায়, সহযোগিতা চায়। কিন্তু দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বের ওপর আঘাত এলে তা সহ্য করা হবে না।

নিম্ন আদালত থেকে খালাস পাওয়া মামলায় তারেক রহমানকে সাজা দেওয়ার প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলে ড. মোশাররফ হোসেন বলেন, সম্পূর্ণ রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় এই মামলা হয়েছে। এর মাধ্যমে সরকার বিএনপিকে দুর্বল করতে চায়। জনগণের কাছে তাদের চেহারা স্পষ্ট হয়েছে।

মির্জা আব্বাস বলেন, তারেক রহমানকে যে মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে সেখানে বিচারকে প্রভাবিত করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বা বাদী কেউই বলেননি, তারেক রহমান টাকা নিয়েছেন। তাহলে কিসের ভিত্তিতে তাকে সাজা দেওয়া হলো? স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, বিএনপিকে যারা ধ্বংসের চিন্তা করছে তারা বোকার স্বর্গে বাস করছে। নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘চক্রান্ত শুরু হয়েছে মাত্র। অনির্বাচিত ও দুর্নীতিবাজ সরকার তার ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে বিএনপির জনপ্রিয় নেতাদের নির্বাচন করতে দেবে না। সে জন্য তাদের মিথ্যা মামলায় অভিযুক্ত করা হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow