Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:১৬
তদন্ত কমিটি গঠন
রংপুর মেডিকেলে দুই শিক্ষার্থী র‌্যাগিংয়ের শিকার
নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

রংপুর মেডিকেল কলেজ ছাত্রীনিবাসের দুই শিক্ষার্থী র‌্যাগিংয়ের শিকার হয়েছেন। ছাত্রলীগ পরিচয়ে সাত ছাত্রী শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালান বলে নির্যাতিতরা গতকাল কলেজ অধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ বিষয়ে গতকাল গ্যাস্ট্রোএনট্রোলজি বিভাগের শিক্ষক নুরুল ইসলামকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। কমিটিকে কাল শনিবারের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। অপরদিকে এ ঘটনায় ছাত্রলীগ জড়িত কিনা তা তদন্তে কলেজ শাখা ছাত্রলীগ আরেকটি কমিটি করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নতুন তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী আনিকারাজ ছাত্রীনিবাসের ২৫ নম্বর এবং মুনা ২৬ নম্বর কক্ষে থাকেন। ২৯ আগস্ট রাতে সাত শিক্ষার্থী ছাত্রলীগের নেতা পরিচয়ে আনিকারাজ ও মুনার কক্ষে ঢুকে তাদের শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেন। তাদের রাতভর দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। এ সময় তারা দুই কক্ষের জিনিসপত্র তছনছ করেন। পরদিন ৩০ আগস্ট সকালে নির্যাতিতরা চিকিৎসা নেওয়ার পর গতকাল অধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ করে নির্যাতনকারীদের শাস্তির দাবি জানান। রংপুর মেডিকেল কলেজের তিনটি পুরুষ ও একটি ছাত্রীনিবাসের তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্বে নিয়োজিত শিক্ষক সারওয়াত হোসেন চন্দন জানান, বিষয়টি জানার পর ওই দুই কক্ষ পরিদর্শন করে সিলগালা করা হয়। নির্যাতিত দুই শিক্ষার্থীকে নিজ বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। সাত ছাত্রী ছাত্রলীগের পরিচয়ে ওই দুই শিক্ষার্থীর ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানোর পর কক্ষের সবকিছু তছনছ করে। বিষয়টি দুঃখজনক।

তদন্ত কমিটির সদস্য ও ছাত্রীনিবাসের তত্ত্বাবধায়ক তামান্না হামিদ জানান, তদন্ত শুরু করেছি। কাল শনিবারের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে হবে।

কলেজ অধ্যক্ষ অনিমেষ মজুমদার জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 প্রতিবেদনের ভিত্তিতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গৌরাঙ্গ সাহা জানান, ছাত্রলীগ পরিচয়ে কয়েকজন ছাত্রী র‌্যাগিংয়ের ঘটনা ঘটিয়েছে। অভিযুক্তরা ছাত্রলীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত কিনা তদন্তের জন্য তিন সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। কমিটিকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। অভিযুক্তরা ছাত্রলীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow