Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৫৯
ঢাকা ও এক চরের বাসিন্দারা প্রথম পাবেন স্মার্টকার্ড
নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রথমে ঢাকা ও কুড়িগ্রামের রৌমারীর একটি চরে উন্নতমানের জাতীয় পরিচয়পত্র ‘স্মার্টকার্ড’ বিতরণ শুরু করবে নির্বাচন কমিশন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনের পরদিন থেকে ঢাকা ও চরের নাগরিকদের হাতে তুলে দেওয়া হবে এই কার্ড।

গতকাল ‘স্মার্টকার্ড বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন’ উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা শেষে এ তথ্য জানান ইসি সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২ অক্টোবর রাজধানীতে স্মার্টকার্ড বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। আগামী বছর ডিসেম্বরের মধ্যে দেশের ৯ কোটি নাগরিকের হাতে স্মার্টকার্ড পৌঁছে দেওয়ার জন্যে ফ্রান্সের একটি সংস্থার সঙ্গে ইসির চুক্তি রয়েছে। ইসি সচিব বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনের পরদিন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার একটি চরে বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। ৩ অক্টোবর থেকে ঢাকা মহানগরী ও প্রত্যন্ত এলাকায় একযোগে বিতরণ শুরু হবে। সিরাজুল ইসলাম জানান, বিতরণ কাজে ৭৫টি টিমে দেড় হাজার  লোকবল কাজ করবে। রাজধানীর ৯৭টি ওয়ার্ডে একটি করে ক্যাম্প থাকবে। ভোটাররা সংশ্লিষ্ট ক্যাম্পে গিয়ে লেমিনেটেড কার্ড জমা রেখে ও দশ আঙ্গুলের ছাপ ও চোখের কণিকার (আইরিশ) ছাপ দিয়ে নিজের স্মার্টকার্ড নিয়ে আসবেন। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে পর্যায়ক্রমে দেশের ৯ কোটি ভোটারকে স্মার্টকার্ড সরবরাহ করা হবে। এরপর বাকি ভোটারদের স্মার্টকার্ড দিতে আলাদা প্রকল্প নেওয়া হবে বলে জানান ইসি সচিব।

কর্মপরিকল্পনা চূড়ান্ত হবে শিগগির : ইসি সচিব জানান, ২ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে ইসি সচিবালয়ে বিভিন্ন কমিটি, উপকমিটি গঠন ও দায়িত্ব বণ্টনের কাজ চলছে। পাশাপাশি বিতরণ কাজও দ্রুত ও সুচারুভাবে করতে মাঠপর্যায়ের কাজ গুছিয়ে আনা হচ্ছে। ইসি কর্মকর্তারা জানান, প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মার্টকার্ড তুলে দেওয়ার পর আঙ্গুলের ছাপ ও আইরিশ নেওয়া হবে। রাষ্ট্রপতির স্মার্টকার্ড  পৌঁছানোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রচার কাজের সুবিধার্থে কিছু নতুন কৌশলও রয়েছে ইসির। উদ্বোধনী কার্যক্রমের দিন কিছু কর্মপরিকল্পনা রয়েছে। এসব অনুমোদন হলেই গণমাধ্যমকে জানানো হবে। সেই সঙ্গে কোন এলাকায় কত দিন বিতরণ কাজ চলবে, প্রয়োজনীয় যোগাযোগের নম্বরসহ আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শিগগির নিশ্চিত করা হবে বলে জানান ইসি সচিব।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow