Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:০০
পুরান ঢাকায় বিপুল নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ ১২ জনকে জেল-জরিমানা
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিক্রয়-নিষিদ্ধ সরকারি হাসপাতালের ওষুধ ও গরু মোটাতাজাকরণের ওষুধ সরবরাহের দায়ে পুরান ঢাকার ১২ ব্যবসায়ীকে বিভিন্ন মেয়াদে জেল ও জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল র‌্যাব-১০ ও ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর যৌথভাবে পুরান ঢাকার বাবুবাজার এলাকার আমির মেডিসিন মার্কেটে এ অভিযান চালায়। এতে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম। এ সময় দুজনকে জেল আর ১০ জনকে ১৩ লাখ টাকা জরিমানা এবং ৪ কোটি টাকার নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ করা হয়।

র‌্যাব-১০ জানায়, হাসপাতালের বিনামূল্যের ওষুধ ও গরু মোটা করার নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রির অপরাধে তিতাস মেডিকেল হলের মালিক ফজলুল হক এবং আলপনা মেডিকেল হলের মালিক চন্দন দাসকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ছাড়া বিক্রয়-নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রির দায়ে পূরবী এন্টারপ্রাইজের মালিক এনামুল হককে দেড় লাখ; মহামায়া ড্রাগ হাউসের মালিক পলাশ দেবনাথ ও বনানী মেডিকেল স্টোরের মালিক আবদুল হামিদকে ১ লাখ করে; এবি ড্রাগ হাউসের মালিক গোলাম মোহাম্মদকে ৫ লাখ; গ্রামীণ ফার্মার মালিক মীর ইকবাল হোসেন, সিকদার এন্টারপ্রাইজের মালিক শফিকুল ইসলাম ও এসআর ড্রাগ হাউসের মালিক মোকসেদুর রহমানকে ৫০ হাজার করে; নিশাদ এন্টারপ্রাইজের মালিক জাবেদ উদ্দিন মাহমুদ, বোরহান এন্টারপ্রাইজের মালিক সামসুল আলম ও আরমান মেডিকেল হলের মালিক মুরাদ হোসেনকে পৃথকভাবে ১ লাখ টাকা করে— এই মোট ১৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অভিযানে প্রায় ৪ কোটি টাকার সরকারি ও বিক্রয়-নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ করা হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow