Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩০
অবৈধ বালুমহাল : রেলসচিবসহ ১১ কর্মকর্তাকে শোকজ

চট্টগ্রামের বহুল আলোচিত কালুরঘাট ব্রিজের পশ্চিমপাড়ে রেলওয়ের মালিকানাধীন জমিতে কৃষি লাইসেন্স নিয়ে অবৈধভাবে কোটি টাকার বালুমহাল গড়ে তোলায় রেলওয়ে সচিব, মহাপরিচালকসহ (ডিজি) ১১ জনকে শোকজ করেছে হাইকোর্ট। জানা গেছে, এ অবৈধ বালুমহাল উচ্ছেদের জন্য পাঁচ মাসে কয়েক দফা নোটিস দিয়েও রহস্যজনক কারণে উচ্ছেদ কার্যকর করেনি রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এ অবস্থায় জনস্বার্থে গত ৫ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টে মামলা করেন স্থানীয় বাসিন্দা এনামুল হক। সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী আলাউদ্দিন আহমেদ জানান, বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণ দেবনাথের গঠিত বেঞ্চ গতকাল এক আদেশে আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে বালুমহালটি উচ্ছেদ করে এবং এতদিন কেন উচ্ছেদ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়নি- তা জানাতে আদালতে হাজির হয়ে অভিযুক্তদের কারণ দর্শাতে বলেছে। জানা গেছে, গত এপ্রিল থেকে আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্ন সময় রেলের জমি অবৈধ দখলকারী জনৈক কামাল উদ্দিনকে কয়েক দফা উচ্ছেদের নোটিস দিয়েও রেলওয়ের বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা ইশরাত রেজা রহস্যজনকভাবে কার্যক্রম বাস্তবায়ন না করায় এ মামলা করা হয়। মামলা ছাড়া আগে বাংলাদেশ রেলওয়ে (চট্টগ্রাম) পূর্বাঞ্চলসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি লিখিতভাবে জানানোর পরও কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় তিনি (এনামুল হক) উচ্চ আদালতের আশ্রয় নেন। পশ্চিম কালুরঘাট কর্ণফুলী নদীর তীরে কৃষিকাজে ব্যবহারের জন্য রেলওয়ের জায়গা ইজারা নিয়ে অবৈধভাবে গড়ে তোলা হয়েছে বালুমহালটি।

অবৈধ এই বালুমহাল উচ্ছেদে ইজারাদারকে কয়েক দফা নোটিসও দিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু রেলওয়েই তা কার্যকর করছে না বলে অভিযোগ উঠেছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow