Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩৩
আঁশভিত্তিক পণ্য রপ্তানির সম্ভাবনাসৃষ্টি হয়েছে : আমু
নিজস্ব প্রতিবেদক

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, বাংলাদেশে পাট, কলাগাছের বাকল ও আনারসের পাতা থেকে আঁশভিত্তিক পণ্য উৎপাদনের মাধ্যমে রপ্তানি বহুমুখীকরণের নতুন সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। পলিথিনের বিকল্প হিসেবে প্রাকৃতিক আঁশ থেকে উৎপাদিত পণ্যের ব্যবহার বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব আরোপ করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, বিশ্বব্যাপী পলিথিন ব্যবহারের পরিবর্তে প্রাকৃতিক উৎস থেকে তৈরি বিকল্প পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে।

গতকাল বাংলাদেশ উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (বিডব্লিউসিসিআই) আয়োজিত ‘প্রাকৃতিক আঁশ থেকে উৎপাদিত পণ্যের সম্ভাবনা’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী আমির হোসেন আমু। সংগঠনের সভাপতি সেলিমা আহমাদের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তব্য দেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুষেণ চন্দ্র দাস, বাংলাদেশ ইন্সপায়ার্ড প্রোগ্রামের টিম লিডার আলী সাবেদ, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্যুরো বাংলাদেশের পরিচালক সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। আমির হোসেন আমু বলেন, নারী জনগোষ্ঠীকে বাদ দিয়ে দেশের উন্নয়ন চিন্তা কোনোভাবেই সফল হতে পারে না। এ বাস্তবতা বিবেচনা করে সরকার নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে ব্যাপক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে। শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন শিল্পপার্ক ও শিল্পনগরীগুলোতে ন্যূনতম শতকরা ১০ ভাগ প্লট নারীদের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। ভবিষ্যতে নতুন স্থাপিত শিল্পনগরীতেও নারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্লট দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, বর্তমান সময়ে নারী উন্নয়নকে রাষ্ট্র ও সমাজের সামগ্রিক উন্নয়ন থেকে আলাদা করে দেখার কোনো সুযোগ নেই। আর এ কারণেই নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন ও উন্নয়ন সরকারের পরিকল্পনা ও কার্যক্রমের অগ্রাধিকারভিত্তিক অন্যতম এজেন্ডা। বিডব্লিউসিসিআই সভাপতি সেলিমা আহমাদ বলেন, ‘আমাদের কলাগাছ ও আনারসকে সম্পদে পরিণত করার সময় এসেছে। বর্জ্য এখন অর্থকরী পণ্যে রূপান্তরিত হচ্ছে।

এটি আজ প্রমাণিত যে, কলাগাছের বাকল আর আনারসের পাতা এখন ফেলে দেওয়ার নয়, এটি অনেক সম্ভাবনাময় ব্যবসা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow