Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০২:২৮
চট্টগ্রামে বাসা থেকে কলেজশিক্ষকের পা বাঁধা লাশ উদ্ধার
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে নিজ বাসা থেকে পা বাঁধা অবস্থায় এক কলেজশিক্ষকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল রাত ১০টার দিকে নগরের আরাকান হাউজিং সোসাইটির ২ নম্বর সড়কের পাঁচ তলা একটি ভবনের তৃতীয় তলার ফ্ল্যাট থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত ইকবাল হোসেন চৌধুরী (৫৫) নগরের পাহাড়তলী কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক।

পুলিশ বলছে, এটি রহস্যজনক মৃত্যু। মৃতদেহে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে পরিবার বলছে, ইকবালকে হত্যা করা হয়েছে। পরিবার নিয়ে ওই বাসায় ভাড়া থাকতেন ইকবাল হোসেন চৌধুরী। ইকবাল হোসেনের বাড়ি বাঁশখালীর সাধনপুরে। তার স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা রাঙ্গুনিয়া কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। তাদের একমাত্র মেয়ে আফিয়া ইকবাল চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী। তিনি বলেন, সকাল ৮টার দিকে তার মা কলেজে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বেরিয়ে যান। বাবা ইকবাল সকাল সাড়ে ৯টায় কলেজে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হন। বাবার সঙ্গে তিনিও বাসা থেকে বের হয়ে খালার বাসায় যান। সেখান থেকে বেলা ৩টার দিকে বাসায় ফিরে দেখতে পান ভিতর থেকে দরজা বন্ধ। অনেক ডাকাডাকির পরও কেউ দরজা না খোলায় পঞ্চম তলায় কাজ করা মিস্ত্রিদের ডেকে এনে দরজা ভেঙে ভিতরে ঢোকেন তিনি। আফিয়া বলেন, দরজা খোলার পর বাসার শৌচাগারে পানির ড্রামের মধ্যে তার বাবাকে উপুড় হয়ে পড়ে থাকতে দেখেন। তার পা বাঁধা ছিল। ততক্ষণে কলেজ থেকে তার মা চলে আসেন। পরে পুলিশকে খবর দেন তারা। আত্মহত্যা নয়, তার বাবাকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি করেন আফিয়া। ঘটনাস্থলে নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (পাঁচলাইশ অঞ্চল) মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, নিহত ব্যক্তির পা বাঁধা অবস্থায় ছিল। বুকে, পিঠে, পায়ের তালু ও মাথার পেছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে এটি রহস্যজনক মৃত্যু মনে হচ্ছে। আত্মহত্যা বলে মনে হচ্ছে না। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কলেজশিক্ষকের স্ত্রী ও মেয়েকে থানায় আনা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow