Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০৩
টাম্পাকো ট্র্যাজেডি
লাশের সন্ধানে ডগ স্কোয়াড
টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি

গাজীপুরের টঙ্গী বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় টাম্পাকো ফয়েলস অ্যান্ড প্যাকেজিং কারখানায় ঘটে যাওয়া ভয়াবহ অগ্নিদুর্ঘটনায় ধ্বংসস্তূপ ভবনে লাশের সন্ধানে এবার ডগ স্কোয়াড। গতকাল দুপুরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১৪ স্বতন্ত্র ইঞ্জিনিয়ার ব্রিগেড-এর সদস্য ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা বিদেশি চারটি ব্ল্যাক ডগ স্কোয়াড দিয়ে ধারণাকৃত স্থানে উদ্ধার অভিযান চালান।

উদ্ধার কর্মীরা এ পর্যন্ত ৩৯টি মরদেহ উদ্ধার করেন। সেনাবাহিনীর সদস্যরা ধ্বংসস্তূপ ভবনে আরও লাশ রয়েছে এমন ধারণা থেকেই ডগ স্কোয়াড দিয়ে এ অভিযান চালান। ঘটনার পর ২০ দিন অতিবাহিত হলেও এখনো উদ্ধার কাজ শেষ হয়নি। কবে নাগাদ এ উদ্ধার কার্যক্রম শেষ হবে এ বিষয়ে পরিষ্কার কোনো তথ্য কারও জানা নেই। এদিকে নিখোঁজ স্বজনের খোঁজে এখনো দ্বারে দ্বারে ঘুরছে নিহতের স্বজনরা। একবার ঢামেক হাসপাতালে আরেকবার ধ্বংসস্তূপ ভবনে আবার জেলা প্রশাসন কন্ট্রোলরুমে। সকাল থেকে সেই রাত পর্যন্ত স্বজনহারা বেদনা নিয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরছে। কবে স্বজনদের লাশ পাবেন সেই অপেক্ষায় দিন গুনছে। অপরদিকে গাজীপুরজেলা প্রশাসনের দেওয়া তথ্য মতে জানা যায়, টাম্পাকো ফয়েলস অ্যান্ড প্যাকেজিং কারখানায় ঘটে যাওয়া ভয়াবহ অগ্নি দুর্ঘটনায় ৩৯ জন নিহতের মধ্যে ৩১ জনের পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। বাকি আটজনের লাশ অশনাক্ত হিসেবে ঢামেক হাসপাতাল হিমাঘরে রাখা হয়েছে। তবে নিখোঁজ নয় শ্রমিকের স্বজনরা ঢামেক হাসপাতালে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য লালা ও রক্ত দিয়েছেন। ডিএনএ পরীক্ষা শেষে অশনাক্ত হিসেবে পড়ে থাকা ওই আট লাশের পরিচয় মিলবে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow