Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৪২
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার রাজনীতি
মৎস্যমন্ত্রীকে উকিল নোটিস জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো. ছায়েদুল হককে উকিল নোটিস পাঠিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি ও সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার। সম্প্রতি বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় মত্স্যমন্ত্রীর বিবৃতিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ও গুনিয়াউক ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নে ১ কোটি ১৫ লাখ টাকার মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ করায় সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক মানহানির অভিযোগ করে ব্যক্তিগতভাবে পৃথক চিঠিতে উকিল নোটিস পাঠান।

বুধবার উকিল নোটিস পাঠান সভাপতি উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি এবং বৃহস্পতিবার উকিল নোটিস পাঠান সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার। বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান আল মামুন সরকার। এ সময় তিনি জানান, ‘উকিল নোটিসে সাত দিনের সময় দিয়ে মত্স্যমন্ত্রীকে আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণের চ্যালেঞ্জ অথবা অভিযোগ প্রত্যাহার করে ক্ষমা প্রার্থনার আহ্বান জানিয়েছি। অন্যথায় আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’ তিনি বলেন, বিগত ইউপি নির্বাচনে মত্স্যমন্ত্রী এককভাবে বিতর্কিত কার্যক্রম করায় দলের গঠনতন্ত্র মোতাবেক গত ২৫ জুলাইর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিস প্রদান করা হয়। কিন্তু তিনি এর জবাব না দেওয়ায় ২৩ সেপ্টেম্বরের জেলা আওয়ামী লীগের সভায় সর্বসম্মতভাবে মৎস্যমন্ত্রী ছায়েদুল হককে জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি প্রদানের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটিতে সুপারিশ পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ কারণে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট, কল্পনাপ্রসূত মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ আনেন; যা চরম বিদ্বেষপূর্ণ ও মানহানিকর। একই সময়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নামে মত্স্যমন্ত্রী ছায়েদুল হকের করা মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগের প্রতিবাদ করেছেন নাসিরনগর হরিপুর ইউনিয়নে নির্বাচিত চেয়ারম্যান দেওয়ান আতিকুর রহমান আঁখি ও গুনিয়াউক ইউনিয়নের পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী গোলাম ছামদানী।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow