Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৩০
নেত্রকোনার ছাত্রী উত্ত্যক্তের ঘটনায় আটক ৩
নেত্রকোনা প্রতিনিধি

নেত্রকোনার শ্যামগঞ্জে ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত ও লাঞ্ছিতের প্রতিবাদ করায় বাবাকে আহত করেছে বখাটেরা। মঙ্গলবার দুপুরে পূর্বধলা উপজেলার বিশকাকুনী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেনের ছেলে শাহাদত হোসেন এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ছাত্রীর বাবা মিজানুর রহমান ও স্কুলের প্রধান শিক্ষক রুহুল আমিন বাদী হয়ে পূর্বধলা থানায় পৃথক দুটি মামলা করেছেন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ তিনজনকে আটক করলেও চেয়ারম্যানপুত্র শাহাদতকে আটক করতে পারেনি।

এদিকে গতকাল শাহাদতকে গ্রেফতারের দাবিতে স্কুলের সামনে মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী। সাধারণ মানুষ জানায়, প্রভাবশালী দুই নেতার রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে পূর্বধলায় প্রায়ই দ্বন্দ্ব-সংঘাতের ঘটনা ঘটছে।

পূর্বধলা থানার ওসি আবদুর রহমান মামলার বরাত দিয়ে জানান, মঙ্গলবার জালশুকা কুমোদগঞ্জ উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারিয়া রহমান প্রাপ্তিকে উত্ত্যক্ত করেন ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলে শাহাদত। মেয়েকে লাঞ্ছিত করায় মিজানুর রহমান শাহাদতকে শাসাতে গেলে তাকেও মারধর করার অভিযোগ ওঠে শাহাদতের বিরুদ্ধে। পরে উচ্ছৃঙ্খল ছাত্ররা আমজাদ চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলা চালায়। এ ঘটনায় স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও ছাত্রীর বাবা পৃথক দুটি মামলা করেছেন। এদিকে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে খায়ের, সোহেল ও রুবেল নামের তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

up-arrow