Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শনিবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:১৮
গণপিটুনিতে লক্ষ্মীপুর ও ঝালকাঠিতে নিহত ২
লক্ষ্মীপুর ও ঝালকাঠি প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরের কমলনগর ও ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় গতকাল গণপিটুনিতে মো. আবুল হোসেন (৫৫) ও জয়দেব পাইক (২৫) নামে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। ডাকাত সন্দেহে তাদের গণপিটুনি দেওয়া হয়।

লক্ষ্মীপুর: গতকাল ভোররাতে কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সিরাজের বাড়িতে আবুল হোসেনকে আটক করেন ওই বাড়ির লোকজন। ডাকাত সন্দেহে তাকে গণপিটুনি দেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে অবস্থার অবনতিতে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। নিহত আবুল হোসেন নোয়াখালীর সুধারাম উপজেলার আণ্ডার চর এলাকার বাসিন্দা মৃত আবদুল হকের ছেলে। কমলনগর থানার ওসি কবির আহাম্মদ জানান, ডাকাতি করতে গিয়ে আবুল হোসেন গণপিটুনির শিকার হয়ে নিহত হন। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা শতাধিক লোককে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা হয়েছে।

ঝালকাঠি: কাঁঠালিয়ায় গণপিটুনিতে জয়দেব পাইক নামে একজন নিহত হয়েছেন। নিহত জয়দেব দক্ষিণ ভাণ্ডারিয়া গ্রামের বাবুল পাইকের ছেলে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, রাত দেড়টার দিকে ১০-১২ জনের অস্ত্রধারী ডাকাত দল উপজেলার বিল ছোনাউটা গ্রামের মাদ্রাসাশিক্ষক ফোরকান খানের বাড়িতে হানা দেয় এবং তারা বাড়ির লোকজনকে জিম্মি করে টাকা, সোনার অলঙ্কার ও মালামাল লুটে নিয়ে চলে যাচ্ছিল। এ সময় তিন গ্রামের লোকজন একত্রিত হয়ে ধাওয়া করে জয়দেব নামে এক ডাকাতকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ছাড়া জয়দেবকে আটকের সময় বিল ছোনাউটা গ্রামের রমেন হালদারের ছেলে রাজীব হালদার (২৮)-কেও ডাকাত সন্দেহে গ্রামবাসী আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

up-arrow